Categories
Uncategorized

ডা. মুরাদ ইস্যুতে নায়ক ইমনকে গ্রেফতার করেছে ডিবি, জিজ্ঞাসাবাদ শেষে ছেড়ে দিয়েছে

চিত্রনায়িকা নায়িকা মাহিয়া মাহি এবং তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানের ফোনালাপ ফাঁস হওয়ার ঘটনায় ঢালিউড

তারকা মামনুন হাসান ইমনকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। সোমবার রাতে মিন্টু রোডে অবস্থিত গোয়েন্দা কার্যালয়ে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদের বিষয়টি স্বীকার করেছেন ডিবির যুগ্ম কমিশনার হারুন অর রশিদ। সোমবার রাত ১১টার

দিকে তিনি যুগান্তরকে বলেন, তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডাক্তার মুরাদ হাসান এবং চিত্রনায়িকা মাহির যে ফোনালাপের সঙ্গে অভিনেতা ইমনের সংশ্লিষ্টতা রয়েছে। প্রতিমন্ত্রী যখন ফোন করেন তখন ফোন রিসিভ করেন ইমন। তারপর প্রতিমন্ত্রীর সঙ্গে ইমন এবং মাহির কথোপকথন হয়। এই কথোপকথন ইতোমধ্যে ভাইরাল হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, মাহি এই মুহূর্তে ওমরার জন্য সৌদি আরবে অবস্থান করছেন। তাই প্রাথমিকভাবে তার বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি। এ কারণে ইমনকে ডিবি কার্যালয়ে ডেকেছিলাম। উনি ফোনালাপের এ বিষয়ে অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছেন। প্রায় আধা ঘণ্টাব্যাপী তার সঙ্গে ডিবি কর্মকর্তাদের কথা হয়। প্রাথমিকভাবে তার কোনো ইল

মোটিভ (খারাপ উদ্দেশ্য) পাওয়া যায়নি। রাত সাড়ে ১০টার দিকে তিনি ডিবি কার্যালয়ে ত্যাগ করেন। এক প্রশ্নের জবাবে ডিবি কর্মকর্তা হারুন অর রশীদ বলেন, মাহিয়া মাহি দেশে ফিরলে বিষয়টি নিয়ে তাকেও জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। সরকার এবং আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের নির্দেশনা অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সংশ্লিষ্ট একটি সূত্র জানায়, ইমন জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছেন, প্রতিমন্ত্রী ফোন করে ক্ষোভ প্রকাশ করছিলেন। তিনি তাৎক্ষণিকভাবে বিষয়টি স্বাভাবিক পর্যায়ে নিয়ে আসার চেষ্টা করেছেন। মাহির সঙ্গে প্রতিমন্ত্রী যে ভাষায় কথা বলেছেন তাৎক্ষণিকভাবে তিনি বুঝতে পারেননি।

Categories
Uncategorized

‘প্রতিমন্ত্রী মহোদয় এখন মানসিকভাবে বিপর্যস্ত’

বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য মঙ্গলবারের মধ্যে তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানকে মন্ত্রীসভা থেকে পদত্যাগের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ

হাসিনা। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। মুরাদ হাসানকে এরমধ্যেই এ সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে দেয়া হয়েছে। এদিকে, ঘটনা পরম্পরায় তথ্য প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসান মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছেন বলে জানা গেছে। সোমবার চলমান

বিতর্কের বিষয়ে প্রতিমন্ত্রীর মন্তব্য জানতে চেয়ে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করে মুঠোফোন বন্ধ পাওয়া গেছে। তার ব্যক্তিগত কর্মকর্তা জাহিদ নাঈম যমুনা নিউজকে বলেন, প্রতিমন্ত্রী মহোদয় এখন কথা বলবেন না। তিনি মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছেন। এখন তেমন কারো সাথেই কথা বলছেন না। আওয়ামী লীগের সাধারণ

সম্পাদক ওবায়দুল কাদের সোমবার রাতে তার বাসভবনে ডাক্তার মুরাদ হাসানের বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বলেন, মুরাদ হাসানকে আগামীকালের মধ্যেই মন্ত্রীসভা থেকে পদত্যাগের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। আজ সন্ধ্যায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে এ বিষয়ে কথা হয়েছে এবং আমি আজ রাত ৮ টায় প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসানকে

বার্তাটি পৌঁছে দিই। এর আগে, তারেক রহমানের কন্যা জাইমা রহমানকে নিয়ে অশালীন ও বর্ণবাদী মন্তব্য করায় বাংলাদেশের তথ্য প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ মুরাদ হাসানের পদত্যাগ দাবি করেছে বিরোধী দল বিএনপি। এছাড়া নারী বিদ্বেষী মন্তব্যের কারণে তার পদত্যাগ দাবি করে বিবৃতি দিয়েছেন নারী অধিকার কর্মীরাও।

ভিডিও দেখুন: আগামীকালের মধ্যে তথ্য প্রতিমন্ত্রী মুরাদকে পদত্যাগের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর এরপর, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের নেত্রীদের নিয়েও আপত্তিকর ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্যের অভিযোগ ওঠে তথ্য প্রতিমন্ত্রীর বিরুদ্ধে। এর প্রতিবাদে মুরাদের পদত্যাগ দাবি করেন ছাত্রলীগের বেশ কয়েকজন বর্তমান এবং সাবেক নেত্রী। আরও পড়ুন: তথ্য প্রতিমন্ত্রীর পদত্যাগ চান মির্জা ফখরুল

এদিকে, চলমান এই সমালোচনার মধ্যেই ফেসবুকে মুরাদ হাসানের একটি টেলিফোন আলাপ ছড়িয়ে পড়েছে, যেখানে একজন চিত্রনায়িকাকে নানা অশোভন কথাবার্তা ও হুমকি দিতে শোনা গেছে। এ ফোনালাপের সত্যতা গণমাধ্যমের কাছে স্বীকার করে সেটিকে অগ্রহণযোগ্য বলে মন্তব্য করেছেন চিত্রনায়ক ইমন। তার ফোনে কল দিয়েই সেই চিত্রনায়িকার

সাথে অশোভন কথা বলেন মুরাদ। ইমন বলেন, এটি আসলে বছরখানেক আগের ঘটনা। একটি সিনেমার মহরত অনুষ্ঠানের আগের রাতে প্রতিমন্ত্রী আমাকে ফোন করেছিলেন। বাকিটা তো আপনারা শুনেছেন। এদিকে, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এর আগে বলেছেন, মন্তব্যগুলো প্রতিমন্ত্রীর ব্যক্তিগত। তখন প্রধানমন্ত্রীর

সাথে তারা এ বিষয়ে আলোচনা করবেন বলেও জানান তিনি। মুরাদ হাসান পেশায় চিকিৎসক ও আওয়ামী লীগপন্থী চিকিৎসকদের সংগঠন স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ (স্বাচিপ) ও একাত্তরের ঘাতক-দালাল নির্মূল কমিটির কেন্দ্রীয় সদস্য। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর প্রথমে মুরাদ হাসান স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ে প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব পান।

পরবর্তীতে ২০১৯ সালের মে মাসে স্বাস্থ্য থেকে তাকে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ে প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব দেওয়া হয়। মন্ত্রিত্বে থাকাকালে বিভিন্ন সময় নানা মন্তব্যের বিভিন্ন মহলে বিতর্কিত হয়েছেন তিনি।

Categories
Uncategorized

আগামীকালের মধ্যে তথ্য প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসানকে পদত্যাগের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী

আগামীকালের মধ্যে তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানকে মন্ত্রীসভা পদত্যাগের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। মুরাদ হাসানকে এরমধ্যেই এ সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে দেয়া হয়েছে। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের সোমবার রাতে তার বাসভবনে ডাক্তার মুরাদ হাসানের বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা জানান।

ওবায়দুল আজ বলেন, আজ সন্ধ্যায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে এ বিষয়ে কথা হয়েছে এবং আমি আজ রাত ৮ টায় প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসানকে বার্তাটি পৌঁছে দিই। এর আগে, তারেক রহমানের কন্যা জাইমা রহমানকে নিয়ে অশালীন ও বর্ণবাদী মন্তব্য করায় বাংলাদেশের তথ্য প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ মুরাদ হাসানের পদত্যাগ দাবি

করেছে বিরোধী দল বিএনপি। এছাড়া নারী বিদ্বেষী মন্তব্যের কারণে তার পদত্যাগ দাবি করে বিবৃতি দিয়েছেন নারী অধিকার কর্মীরাও। এদিকে, চলমান এই সমালোচনার মধ্যেই ফেসবুকে মুরাদ হাসানের একটি টেলিফোন আলাপ ছড়িয়ে পড়েছে, যেখানে একজন চিত্রনায়িকাকে নানা অশোভন কথাবার্তা ও হুমকি দিতে শোনা গেছে। এ ফোনালাপের

সত্যতা গণমাধ্যমের কাছে স্বীকার করে সেটিকে অগ্রহণযোগ্য বলে মন্তব্য করেছেন চিত্রনায়ক ইমন। তার ফোনে কল দিয়েই সেই চিত্রনায়িকার সাথে অশোভন কথা বলেন মুরাদ। এদিকে, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এর আগে বলেছেন, মন্তব্যগুলো প্রতিমন্ত্রীর ব্যক্তিগত। তখন প্রধানমন্ত্রীর সাথে তারা এ বিষয়ে

আলোচনা করবেন বলেও জানান তিনি। করেছে বিরোধী দল বিএনপি। এছাড়া নারী বিদ্বেষী মন্তব্যের কারণে তার

Categories
Uncategorized

নিজের গোপন তথ্য ফাঁস করলেন মাহি

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে একটি অডিও ক্লিপ। এটি মূলত একটি ফোনালাপ। যেখানে কথা বলেছেন তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা.

মুরাদ হাসান। অন্য প্রান্তে ছিলেন চিত্রনায়ক ইমন ও চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি সেই ফোনালাপে অশ্লীল ভাষায় চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহিকে দেখা করার জন্য বলেন প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান। চিত্রনায়ক ইমনকে তিনি বলেন, ঘাড় ধরে যেন মাহিকে তার কাছে নিয়ে যান। ভাইরাল হওয়া

ক্লিপটি নিয়ে সমালোচনার মুখে পড়েছেন নায়ক ইমন। তাকে নিয়ে অনেক ট্রলও হচ্ছে। এ অবস্থায় তিনি জাগো নিউজের সঙ্গে কথা বলেছেন। তিনি স্বীকার করেছেন ফাঁস হওয়া ফোনালাপটি সত্যি। তবে এটি সাম্প্রতিক নয়, বছর দুই আগের। ইমন বলেন, ‘আমি খুবই হতাশ হচ্ছি যারা আমাকে চেনেন ও জানেন তারাও আজেবাজে মন্তব্য

করছেন। এত বড় একজন মন্ত্রী যখন আমাকে কল দেন আমি তো তাকে ইগনোর করতে পারি না। সবাই তো অডিও ক্লিপটি শুনেছেন। সেখানে মানুষের গলার স্বর শুনলেও তো বোঝা যায় কে কোন অনুভূতি নিয়ে কথা বলছেন।’ আমাকেই ওই রাতের আগের দিনও তিনি কল দিয়েছিলেন। আমি ধরতে পারিনি। ওইদিন রাতে ওয়াজেদ আলী সুমন

ভাইয়ের ‘ব্লাড’ সিনেমার মিটিং করছিলাম। তখন উনি (প্রতিমন্ত্রী) হঠাৎ ফোন দেন। অডিওতে কিন্তু আছে উনি প্রথমেই বলেছেন, ‘তুই ফোন ধরস নাই কেন?’ আগের দিন ফোন ধরিনি বলে রেগেছিলেন। একজন মন্ত্রী বারবার ফোন দিচ্ছেন আমি না ধরে তো থাকতে পারি না। তাই অনুষ্ঠানের মধ্যেই ধরেছি। বাকি আলাপ তো সবাই শুনেছেন।

উনার আলাপ শুনেই কিন্তু আমি বাধ্য হয়ে বলেছি, ‘হ্যাঁ, ভাই আসতেছি। দেখছি ভাই’। খারাপ কিছু কিন্তু বলিনি। উনি কল দেওয়ার অনেক সময় পার হয়ে গেছে। আমি কিন্তু বারবার বলছি, ‘দু’মিনিট ভাইয়া, নামছি’। আমি চাইছিলাম যেন উনি ফোনটা রাখেন। মাহির সঙ্গে কি আলাপ হয়েছে সেটা কিন্তু আমি জানতে পারিনি।

কারণ আমি মাহির হাতে ফোন দিয়ে ডিরেক্টরের সঙ্গে আলাপ করছিলাম। মাহি কিন্তু আমাকে কিছুই বলেনি এ ব্যাপারে। আমার জানার অপশনও ছিল না। এখন অডিওটা শুনে আমি জানতে পারলাম সেদিন মাহি কতোটা বিব্রত ছিলে। সত্যি কথা বলতে ওই মুহূর্তে ওই কলটা আসলে আমি আশা করিনি। আমি বা মাহি কেউই কিন্তু যাইনি পরে।

আমি শুধু ওই সিচুয়েশনটা ট্যাকেল দেওয়ার চেষ্টা করেছি। কারণ এখন যে যতো কথাই বলুক এত বড় একজন মন্ত্রী কল দিলে তার সঙ্গে বেয়াদবি করা যায় না, তাকে যা খুশি তা বলা যায় না। ভেবেছিলাম একটু পর সব ভুলে যাবেন। হয়েছিল তাই। এনিয়ে তিনি আর পরে কোনো কথা বলেননি।’ ইমন আরও জানান, সেদিনের মিটিং হয়েছিল বনানীর একটি রেস্তোঁরায়।

এরপর ইমন ও মাহি দুজনই যার যার বাসায় চলে যান। ইমনের দাবি, একজন তথ্য প্রতিমন্ত্রী যেকোনো শিল্পীকে ফোন দিতেই পারেন। কিন্তু এমন আচরণ অগ্রহণযোগ্য। তিনি নিজেও হতাশ মাহির সঙ্গে প্রতিমন্ত্রীর ফোনালাপ শুনে। ইমন বলেন, ‘অনেকে আমাকে নিয়ে নানা কথা বলে বেড়াচ্ছেন। আমি দীর্ঘদিন ধরে ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করছি।

আমাকে সবাই চেনেন ও জানেন। কি করে তারা আমাকে নিয়ে এসব বলছেন আমি বুঝে উঠতে পারছি না। আশা করি সবাই বিবেক দিয়ে সিচুয়েশনটা বোঝার চেষ্টা করবেন।’ এদিকে নায়িকা মাহি বর্তমানে সৌদি আরব রয়েছেন। স্বামীর সঙ্গে তিনি ওমরাহ পালন করতে গেছেন। সূএঃ জাগোনিউজ

Categories
Uncategorized

তথ্য প্রতিমন্ত্রী মুরাদের ফোনালাপ তার ব্যক্তিগত ব্যাপারঃ ওবায়দুল কাদের

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদের যে ফোনালাপ ফাঁস হয়েছে সেটি তার একান্তই ব্যক্তিগত বিষয় বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। সোমবার সকালে বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউতে মতবিনিময় সভায় সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা জানান তিনি।

এসময় কাদের বলেন, তথ্য প্রতিমন্ত্রী সরকার বা দল নিয়ে কোনো মন্তব্য করেননি। তারপরও দায়িত্বশীল পদে থেকে কিভাবে তিনি ফোনে এসব কথা বললেন, বিষয়টি নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সাথে কথা বলবেন বলেও জানান ওবায়দুল কাদের।

এছাড়া, সভায় খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে বিএনপি নেতাকর্মীদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন তিনি। বলেন, বিএনপি ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের চেষ্টা করছে। তারা ক্ষমতা দখলের যে দিবাস্বপ্ন দেখছে তা দুঃস্বপ্নে পরিণত হবে বলেও মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।

মুরাদ হাসান জামালপুর-৪ আসনের সংসদ সদস্য। পেশায় চিকিৎসক এই রাজনীতিক স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ (স্বাচিপ) ও একাত্তরের ঘাতক-দালাল নির্মূল কমিটির কেন্দ্রীয় সদস্য।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জয়ের পর আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করলে স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব দেওয়া হয় তাকে। পরে ২০১৯ সালের মে মাসে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী হিসেবে নিযুক্ত হন তিনি।

Categories
Uncategorized

বিশ্ববাজারে টানা ৬ সপ্তাহ কমলো তেলের দাম

বিশ্ববাজারে চলতি সপ্তাহেও জ্বালানি তেলের দাম কমেছে। এ নিয়ে টানা ছয় সপ্তাহ এর মূল্য হ্রাস পেলো। সপ্তাহের হিসাবে ২০১৮ সালের পর

টানা এতদিন তেলের দরপতন হলো। প্রভাবশালী মার্কিন সংবাদমাধ্যম ব্লুমবার্গের এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানা গেছে। এতে বলা হয়, করোনার নতুন ধরন ওমিক্রনের ধাক্কায় তেলের বাজারে মন্দাভাব সৃষ্টি হয়েছে। এছাড়া এই পরিস্থিতিতে বিশ্বের তেল রপ্তানিকারক দেশগুলোর

সংগঠনের (ওপেক) সরবরাহ বৃদ্ধিও এর অন্যতম কারণ। আরও পড়ুন: বিশ্ববাজারে তেলের দাম কমলেও কমছে না দেশে চলতি সপ্তাহে ওয়েস্ট টেক্সাস ইন্টারমিডিয়েট ক্রুড ফিউচারের দাম কমেছে ২.৮ শতাংশ। অন্যদিকে, শনিবার (৪ ডিসেম্বর) বিশ্ববাজারে ডব্লিউটিআই তেলের দর ০.৩৬ শতাংশ পড়েছে। মানে ০.২৪ ডলার কমে

প্রতি ব্যারেল বিক্রি হচ্ছে ৬৬ দশমিক ২৬ ডলারে। অপরিশোধিত তেলের আন্তর্জাতিক বেঞ্চমার্ক ব্রেন্টের মূল্য ০.৩০ শতাংশ হ্রাস পেয়েছে। অর্থাৎ ০.২১ ডলার কমে বিকোচ্ছে ব্যারেলপ্রতি ৬৯ দশমিক ৮৮ ডলারে। এছাড়া হিটিং অয়েলের দাম ০.২৪ শতাংশ পতন হয়েছে। মানে ২ দশমিক ০৯৮ ডলার কমে প্রতি ব্যারেল বিক্রি হচ্ছে। অয়েল প্রাইস

ডটকমে এসব তথ্য পাওয়া গেছে। বিশ্লেষকরা বলছেন, ওমিক্রন আরও আতঙ্ক ছড়ালে বিশ্বব্যাপী তেলের চাহিদা স্বাভাবিকভাবেই কমবে। কারণ, প্রতিটি দেশ সীমান্তে কড়াকড়ি আরোপ করবে। এতে আমদানি-রপ্তানি কমে যাবে। এই আশঙ্কার মধ্যে তেলের সরবরাহ বাড়লে আন্তর্জাতিক বাজারে এর মূল্য আরও হ্রাস পাবে। তবে বিশ্ববাজারে কমলেও বাংলাদেশে কমছে

না তেলের দাম। নেপথ্যে অনাহুত কারণ দেখাচ্ছে সংশ্লিষ্টরা। এতে হতাশ দেশের সাধারণ জনগণ। এ নিয়ে অসন্তোষ জানিয়েছেন ভোক্তা থেকে শুরু জ্বালানি বিশেষজ্ঞরাও।

Categories
Uncategorized

হাসিনা মন্ত্রী পরিষদে একএকটা অশিক্ষিত, ধ;র্ষক, নারীবিদ্বেষী পুষছেন: তাসলিমা

হাসিনা দীর্ঘ বছর ক্ষমতায় বসে আছেন। তিনি জনগণকে নিরাপত্তা দিচ্ছেন না। তিনি নিরাপত্তা দিচ্ছেন শুধু নিজেকে, নিজের বাবা মা ভাই

বোন পুত্র কন্যা এবং নিজের আত্মীয় স্বজনকে। তাঁর এবং তাঁর পরিবারের কারো সম্পর্কে কেউ কোনওরকম সমালোচনা করলে তার আর রক্ষে নেই। তিনি তাকে শূলে চড়াবেনই। তাছাড়া দেশ রসাতলে গেলে তাঁর কিচ্ছু যায় আসে না। দেশ জিহাদিদের দখলে চলে গেলে, প্রগতিশীল

মানুষকে জিহাদিরা কু,পি;য়ে মে;রে ফেললেও তাঁর কিছু যায় আসে না। দেশে দুর্নীতি ভ;য়াবহ আকার ধারণ করলেও, অপরাধের মাত্রা,ধ;র্ষ;ণ সংখ্যা বৃদ্ধি পেলেও, নারীর দুরবস্থা, দরিদ্রের দুরবস্থা সীমা ছাড়িয়ে গেলেও তাঁর কিছু যায় আসে না। তিনি কিছু রাস্তাঘাট আর ব্রিজ বানিয়ে উন্নয়নের বড়াই করে চলেছেন বহু বছর, আর বহু বছর মন্ত্রী

পরিষদে একএকটা অশিক্ষিত, ধ;র্ষ;ক, নারীবিদ্বেষী পুরুষ পুষছেন। তাঁর কি কিছু যায় আসে? একেবারেই না।

Categories
Uncategorized

পরীক্ষার হলে ১৬ পরীক্ষার্থীর কাছে পাওয়া গেল বই!

এইচএসসি পরীক্ষা চলাকালে ১৬ জনকে বইসহ হাতেনাতে আটক করেছেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। কিন্তু কেন্দ্র সচিব ১০ জনকে বহিষ্কার করেছেন।

এ ছাড়াও পরীক্ষা কেন্দ্রে স্মার্টফোন ব্যবহার করায় এক শিক্ষককে ৫ হাজার জরিমানা করা হয়েছে। রোববার (৫ ডিসেম্বর) পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার কাছিপাড়া আবদুর রশিদ (চুন্নু) মিয়া ডিগ্রি কলেজ কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটেছে। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, রোববার ওই কেন্দ্রে বিএম

(বিজনেস ম্যানেজমেন্ট) শাখার পরীক্ষা চলাকালে ১৬ জন পরীক্ষার্থীকে হাতেনাতে ধরেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও বাউফলের সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. বায়েজিদুর রহমান। এ সময় তিনি ১৬ জন পরীক্ষার্থীকে পরীক্ষা কেন্দ্রের সচিব ও কাছিপাড়া আবদুর রশিদ (চুন্নু) মিয়া ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ গোলাম সারওয়ারের কাছে হস্তাস্তর করেন।

আরও পড়ুন: বাবার স্বপ্ন পূরণে হেলিকপ্টারে করে বউ আনলেন কৃষক রাসেল একই সময় একটি কক্ষের পরিদর্শক পাকডাল সফদার আলী মিয়াজী বিজনেস ম্যানেজমেন্ট কলেজের প্রভাষক মো. মহসীন আকনের কাছে স্মার্টফোন পাওয়ায় তাকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কেন্দ্র থেকে ফিরে আসার পর ওই ১৬ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ১০ জনকে

বহিষ্কার করেন কেন্দ্র সচিব।নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. বায়েজিদুর রহমান বলেন, ১৬ জন পরীক্ষার্থীর কাছে বই পেয়েছি। তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার দায়িত্ব সচিবের। কিন্তু ৬ জনের বিরুদ্ধে কেন ব্যবস্থা নেয়া হলো না সেটার খোঁজখবর নিচ্ছি।

Categories
Uncategorized

যাত্রী নিরাপত্তায় সিসি ক্যামেরাযুক্ত বগি যুক্ত হচ্ছে রেলে

ভ্রমণরত যাত্রীদের নিরাপত্তা ও ধ্বংসাত্মক কার্যক্রম প্রতিরোধের লক্ষ্যে প্রথমবারের মতো ক্লোজড সার্কিট টেলিভিশন (সিসিটিভি) ব্যবস্থাসমৃদ্ধ

কোচ কিনতে যাচ্ছে বাংলাদেশ রেলওয়ে। পদ্মা সেতু রেল সংযোগ প্রকল্পের আওতায় চীন থেকে ১০০টি ব্রড গেজ কোচ কেনা হচ্ছে। এ কোচগুলোতেই থাকছে সিসি ক্যামেরা। সম্প্রতি রেল ভবনে অনুষ্ঠিত এক সভায় কোচগুলোর স্পেসিফেকশন চূড়ান্ত করেছে সংস্থাটি। পদ্মা সেতু

রেল সংযোগ প্রকল্পের মাধ্যমে নির্মাণাধীন ঢাকা-যশোর রেলপথসহ দেশের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ রুটে চলবে এসব কোচ। এর বাইরে ইউরোপিয়ান ইনভেস্টমেন্ট ব্যাংকের (ইআইবি) অর্থায়নে ২০০টি ব্রড গেজ ও টেন্ডারার্স ফাইন্যান্সিংয়ের মাধ্যমে ২০০টি মিটার গেজ কোচ কিনছে রেলওয়ে। এসব কোচেও সিসি ক্যামেরার ব্যবস্থা থাকছে বলে

জানিয়েছেন রেলওয়ের কর্মকর্তারা। পদ্মা সেতু রেল সংযোগ প্রকল্পের মাধ্যমে ১০০টি ব্রড গেজ কোচ কেনা হচ্ছে চীনের সিআরইসি তাংশান কোম্পানি লিমিটেডের কাছ থেকে। এসব কোচের মধ্যে রয়েছে চারটি শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত স্লিপার কোচ, ১৬টি শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত চেয়ার কোচ, ৫২টি শোভন চেয়ার কোচ, ১৮টি প্যান্ট্রি ও গার্ডব্রেকসহ শোভন

চেয়ার কোচ এবং ১০টি পাওয়ার কোচসহ শোভন চেয়ার কোচ। এ কোচগুলোর প্রতিটিতেই থাকবে সিসি ক্যামেরা। চেয়ারকোচগুলোতে ক্যামেরাগুলো বসানো থাকবে কোচের ভেতরে। আর স্লিপার কোচে ক্যামেরা লাগানো থাকবে কোচের করিডোরে। সম্প্রতি রেল ভবনে অনুষ্ঠিত এক সভায় এসব বিষয় চূড়ান্ত করা হয়েছে। যাত্রীদের সুবিধার্থে

নতুন কোচগুলোতে আধুনিক টয়লেট, ওয়াশিং বেসিন, স্লাইডিং দরজা, টিভি মনিটর, পরিবেশবান্ধব বায়োটয়লেট, শারীরিকভাবে অক্ষম যাত্রীদের জন্য বিশেষ ধরনের টয়লেটসহ বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা রাখার কথা জানিয়েছেন রেলওয়ের কর্মকর্তারা। বাংলাদেশ রেলওয়ের তথ্য বলছে, ২০১১ সালের পর থেকে এখন পর্যন্ত ৩০০টি মিটার

গেজ ও ২২০টি ব্রড গেজ যাত্রীবাহী কোচ কেনা হয়েছে। এসব মিলে বর্তমানে বাংলাদেশ রেলওয়েতে সচল যাত্রীবাহী কোচ আছে ১ হাজার ৬৭১টি। এর মধ্যে ১ হাজার ২০৩টি মিটার গেজ কোচ। বাকিগুলো ব্রড গেজ। মিটার গেজ ও ব্রড গেজ মিলে বর্তমানে এসি কোচ রয়েছে ২১৬টি। নন-এসি কোচের সংখ্যা ১ হাজার ৪৫৫টি। রেলের বহরে দেড়

হাজারের বেশি কোচ থাকলেও এগুলোর সিংহভাগেরই অর্থনৈতিক আয়ুষ্কাল শেষ। বাংলাদেশ রেলওয়ের তথ্য বলছে, যাত্রীবাহী ১ হাজার ৭৭১টি কোচের মধ্যে ৫৯২টি মিটার গেজ ও ২৬৬টি ব্রড গেজ বগির আয়ুষ্কাল শেষ হয়ে গেছে। শতাংশের হিসাবে রেলের আয়ুষ্কাল ফুরিয়ে যাওয়া কোচের পরিমাণ ৪৭ ভাগ। প্র্রায় অর্ধেক কোচের অর্থনৈতিক

আয়ুষ্কাল শেষ হয়ে যাওয়ায় ট্রেন পরিচালনা মারাত্মকভাবে বিঘ্নিত হচ্ছে বলে জানিয়েছেন রেলওয়ের কর্মকর্তারা। তবে রেলের রোলিং স্টকের এ অবস্থার জন্য দীর্ঘদিন ধরে রেল খাতের উন্নয়ন না হওয়াকে দায়ী করছেন রেলপথমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন। বণিক বার্তাকে তিনি বলেন, ১৯৭৫ সালের পর থেকেই বলতে গেলে রেলের উন্নয়ন থমকে গেছে। এ সময়ে সড়কপথে

যত উন্নতি হয়েছে, রেলে তার ছিঁটেফোঁটাও লাগেনি। ২০১৯ সালে আওয়ামী সরকার ক্ষমতা গ্রহণের পর রেলকে আলাদা মন্ত্রণালয় করা হয়েছে। রেলের উন্নয়নে একের পর এক প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় গত এক দশকে বাংলাদেশ রেলওয়েতে তিন শতাধিক নতুন কোচ কেনা হয়েছে। কোচ কেনার জন্য আরো একাধিক প্রকল্প চলমান আছে।

প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে আজকে যেভাবে রেলের উন্নতি হচ্ছে, তাতে আমরা আশা করি, কয়েক বছরের মধ্যেই বাংলাদেশ রেলওয়ে একটি উন্নত ও আধুনিক প্রতিষ্ঠানে পরিণত হবে।#

Categories
Uncategorized

‘স্বামী হলো একজন নারীর কাছে আল্লাহর পক্ষ থেকে বড় নেয়ামত’

স্বামীর সেবা না করলে নারীদের বিয়ে করা উচিত নয় বলে মন্তব্য করেছেন পাকিস্তানের একজন বিখ্যাত টিকটকার। নারীবাদ এবং আওরাত মার্চ

সম্পর্কে মন্তব্য করতে গিয়ে তিনি এমন মন্তব্য করেন। খবর জিউও নিউজের। পাকিস্তানের এই বিখ্যাত টিকটকার তাবিস হাশমি আরও বলেন, ইসলামে নারীদের সব ধরনের অধিকার রয়েছে। বিশ্বে আর কোনো ধর্ম নেই যে নারীদের অধিকার নিয়ে কথা বলেছে। সম্প্রতি তিনি এক

সাক্ষাৎকারে এসে এমন মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, ‘আমার শরীর আমার ইচ্ছা’ এই কথা বলে কেন এখন স্লোগান দিতে হবে। ইসলাম এ ব্যাপারে আমাদের স্পষ্ট করে দিয়েছে। ইসলাম আমাদের সকল অধিকার সম্পর্কে কথা বলেছে। তবে আমাদের সেই সব নারীদের পাশে দাঁড়ানো উচিত যাদের প্রতি অবিচার করা হয়।

একজন নারীর কাজ করার অধিকার রয়েছে, শিক্ষা গ্রহণের অধিকার রয়েছে এছাড়া অধিকার রয়েছে লাইফ পাটনার পছন্দ করার। এই তারকা বলেন, ‘নারীবাদিরা স্বামীদের সেবা করার বিষয়টিকে ক্ষুণ্ণ করতে চায়। তারা চায় না স্বামীর সেবা করতে বরং স্বামী তাদের সেবা করুক এটাই তারা বাস্তবায়ন করতে চায়। নারীদের মনোভাব যদি এমন

থাকে তাহলে তাদের বিয়ে করা উচিত নয়। স্বামী হলো একজন নারীর কাছে আল্লাহর পক্ষ থেকে বড় নেয়ামত। তাই তাদের কথা শোনা উচিত এবং তাদের চাহিদার গুরুত্ব দেওয়া উচিত।’