Categories
Uncategorized

১৯ দিন বয়সী যমজ সন্তান ফেলে গেলেন মা, বিপাকে বাবা

মাদারীপুরের কালকিনিতে ১৯ দিন বয়সী যমজ কন্যা সন্তানকে স্বামীর বাড়িতে ফেলে বাবার বাড়ি চলে গেছেন সানজিদা

বেগম নামে এক গৃহবধূ। এতে সন্তানদের নিয়ে চরম বিপাকে পড়েছেন বাবা হাসান মোল্লা। হাসান মোল্লা ওই উপজেলার ডাসার
থানাধীন কাজীবাকাই ইউপির দক্ষিণ মাইজপাড়ার ফজল মোল্লার ছেলে। তার স্ত্রী সানজিদা বেগম পার্শ্ববর্তী মিনাজদী

গ্রামের ফজলে হাওলাদারের মেয়ে। বৃহস্পতিবার দুপুরে হাসান মোল্লার বাড়িতে গিয়ে জানা গেছে, প্রায় দেড় বছর আগে পারিবারিকভাবে সানজিদাকে বিয়ে করেন হাসান। ১৯ দিন আগে সানজিদার কোল জুড়ে আসে যমজ কন্যা সন্তান। কিন্তু তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে বিরোধের জেরে

মঙ্গলবার দুই সন্তানকে স্বামীর কাছে ফেলে বাবার বাড়িতে চলে যান সানজিদা। এতে চরম বিপাকে পড়েছেন হাসান মোল্লা। দুই নবজাতককে লালন-পালনে হিমশিম খেতে হচ্ছে তাকে। বুকের দুধ না পেয়ে সারাক্ষণ কান্নাকাটি করছে ১৯ দিন বয়সী দুই শিশু। হাসান মোল্লা বলেন, সানজিদা তুচ্ছ কারণে বাবার বাড়ি চলে যায়। এর আগেও সে এমন করেছে।

এবার দুটি বাচ্চাকে ফেলে গেছে। বারবার বলার পরও সে ফিরে আসতে চায় না। এখন বাচ্চা দুটি নিয়ে আমি কি করবো? যমজ কন্যার মা সানজিদা বেগম বলেন, শ্বশুরবাড়ির লোকজন তাকে শারীরিক ও মানসিকভাবে যন্ত্রণা দেয়। এ কারণে আমি বাবার বাড়ি চলে এসেছি।
কাজীবাকাই ইউপি চেয়ারম্যান নূর মোহাম্মদ

মোল্লা বলেন, বিষয়টি দঃখজনক। দুই পক্ষের উপস্থিতিতে এ সমস্যার সমাধান করা হবে। সূএঃডেইলি বাংলাদেশ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *