Categories
Uncategorized

১৪ ছেলের পর জন্ম নিল মেয়ে, আনন্দে ভাসছে পরিবার

কন্যা সন্তানের এতই শখ যে, একটি কন্যার আশায় ১৪ ছেলের জন্ম দিয়ে ফেলেছেন এক নারী। আর তাতে আনন্দে আত্মহারা ওই নারী ও তার

স্বামী। আর ছোট্ট বোনকে পেয়ে ভীষণ খুশি ১৪জন ভাই। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এবিপি’র এক প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, ডেট্রয়েটের কাটেরি সোয়ানডট নামের সেই নারী অবশেষে কন্যা সন্তানের মুখ দেখলেন। কিশোর বয়সের প্রেম থেকে অল্প

বয়সেই জায় সোয়ানডটের সঙ্গে বিয়ের পিঁড়িতে বসেছিলেন কাটেরি। ১৯৯৩ সালে স্নাতক হওয়ার আগেই তিন সন্তানের জননী হন কাটেরি। কিন্তু মেয়ের শখ পূরণ হচ্ছিল না কাটেরি ও তার স্বামীর। অবশেষে ৪৫ বছর বয়সে ১৪ ছেলের পর মেয়ে হওয়ায় তাকে নিয়ে আহ্লাদে
আটখানা পুরো পরিবার। ছোট্ট কন্যা সন্তানের নামও রেখে ফেলেছেন তারা।

ফুটফুটে শিশুটির নাম ম্যাগি জায়নে। ম্যাগিকে পাওয়ার পরে জায় কাটেরি জানিয়েছেন, আমরা আনন্দে আত্মহারা, দারুণ উত্তেজিত। এই বছরটা আমাদের কাছে নানানভাবে স্মরণীয়। কিন্তু ম্যাগি আমাদের কাছে এ বছরের সেরা উপহার। আমরা ভাবতেই পারিনি। ম্যাগির সবচেয়ে বড় ভাইয়ের বয়স ২৮ বছর। বোনকে পেয়ে সেও মহা খুশি।

আর এই দম্পতির সবচেয়ে ছোট ছেলের নাম ফিনলে সেবয়গ্যান। ২০১৮ সালে সে তার জন্ম হয়। এখন বাড়ির সবাই ম্যাগিকে নিয়েই ব্যস্ত। ম্যাগি কেমন করে ঘুমায়, কেমন করে কাঁদে, খিদে পেলে কী করে, কেমন করে তাকায় তা নিয়ে চর্চা করতেই দিন কাটে তাদের।

কন্যা সন্তানের এতই শখ যে, একটি কন্যার আশায় ১৪ ছেলের জন্ম দিয়ে ফেলেছেন এক নারী। আর তাতে আনন্দে আত্মহারা ওই নারী ও তার

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *