Categories
Uncategorized

৫০ হাজার টা’কায় নাতিকে বিক্রি করে দিলেন নি’ষ্ঠুর নানা-নানি

মাত্র ৫০ হাজার টাকায় ২ বছর ৯ মাস বয়সী নাতিকে বিক্রি করে দিলেন নি;ষ্ঠুর নানা-নানি। নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে এ ঘটনা ঘটেছে। পুলিশ

ওই শিশুকে বিক্রির ৪ দিন পর ২ দালালসহ ৬ জনকে আ;টক করেছে।রোববার দুপুর ৩টার দিকে আটকদের গ্রেফতার দেখিয়ে বিচারিক আদালতের মাধ্যমে কা;রাগারে পাঠানো হয়েছে। শনিবার রাতভর নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলায় ;অভি;যান চালিয়ে অ;ভিযুক্ত ৪ জনকে

আট;ক করা হয়। এ সময় বিক্রি করা শিশুটিকেও উদ্ধার করা হয়। আটককৃতরা হলো, লক্ষ্মীপুর জেলার রামগতি উপজেলার দক্ষিণ টুমচর গ্রামের আলা উদ্দিন, নিলুফা বেগম ও সেনবাগ উপজেলার উত্তর শাহাপুর গ্রামের আবু তালেব, সালমা আক্তার, আবুল খায়ের, জামাল উদ্দিন। উদ্ধার হওয়া শিশুর নাম নাজিমুল ইসলাম তামিম। গত ১০ নভেম্বর প্রতারণা করে

শিশুটি বিক্রি করে দেয় তার নানা-নানি। শিশুটির মায়ের অভিযোগের ভিত্তিতে শিশুটির নানা-নানিকে আটক করলে তাদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে ২ দালালসহ ৪ আসামিকে আটক করে পুলিশ। শিশু নাজিমুল ইসলাম তামিম বেগমগঞ্জের মীররওয়ারিশপুর এলাকায় নানা-নানির কাছে ভাড়া বাসায় থাকে। শিশুটির মা একজন কর্মজীবী নারী। ২০১৭ সালে তার প্রথম বিয়ে হয়। এরপর ২০২০ সালে ওই স্বামীর সঙ্গে তার বিচ্ছেদ

হয়। পরবর্তীতে পারিবারিকভাবে তার দ্বিতীয় বিয়ে হয়। বর্তমান স্বামীর সঙ্গে বিয়ের পর আগের সংসারের ছেলেকে তার বাবা-মায়ের কাছে
রেখে বর্তমান স্বামী ঘরে চলে যায় শিশুটির মা। গত ১১ নভেম্বর শিশুটির মা ফেনীর বর্তমান স্বামীর বাসায় তার ছেলেকে নিয়ে
যাওয়ার জন্য বেগমগঞ্জে বাবার বাসায় আসে।

ওই দিন আশপাশের লোকজন তাকে টাকার বিনিময়ে ছেলেকে বিক্রি করার অপবাদ দিতে থাকে। এ বিষয়ে তিনি তার বাবা-মাকে
জিজ্ঞাসা করলে তারা ৫০ হাজার টাকার বিনিময়ে শিশুটিকে বিক্রি করার কথা স্বীকার করে। শিশুটির মা থানায় অভিযোগ করলে বেগমগঞ্জ

থানা পুলিশ শিশুর নানা-নানিকে আটক করে। পরবর্তীতে তাদের দেয়া তথ্যমতে সেনবাগ উপজেলার ৬ নম্বর কাবিলপুর ইউনিয়নের উত্তর শাহাপুর গ্রামে অভিযান চালিয়ে শিশুটিকে উদ্ধার করা হয়। বেগমগঞ্জ থানার ওসি মুহাম্মদ কামরুজ্জামান শিকদার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আটককৃতদের বিরুদ্ধে মানব পাচার প্রতিরোধ ও

দমন আইনে মামলা হয়েছে। তাদের গ্রেফতার দেখিয়ে বিচারিক আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *