Categories
Uncategorized

প্রবাসীদের ফ্রি করোনা ভ্যাকসিন দেওয়া নিয়ে নতুন সিদ্ধান্ত নিলো মালয়েশিয়া

মালয়েশিয়ায় বসবাসরত অভিবাসীদের করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন দেয়া স্থগিত করেছে দেশটির সরকার। মঙ্গলবার (৫ জানুয়ারি) পুএাযায়ায়

জরুরি বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন সরবরাহের ‘অ্যাক্সেস গ্যারান্টি’ বিশেষ কমিটি সভায় অভিবাসীদের বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দেওয়ার সিদ্ধান্তটি স্থগিত করেছে। মালয়েশিয়ার ফরেন মিনিস্টার, হোম মিনিস্টার ও হিউম্যান রিসোর্স মিনিস্টারের সাথে যৌথ বৈঠক

শেষে কমিটির চেয়ারম্যান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী খায়েরি জামাল উদ্দিন সাংবাদিকের ফ্রী ভ্যাকসিন স্থগিতের বিষয়টি অবহিত করেন। মন্ত্রী বলেন, আমরা আরো কয়েক সাপ্তাহের মধ্যে কমিটির সভা করব। বিদেশীদের জন্য বিনামূল্যে এই টিকা দেওয়া উচিত কিনা সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণে তিন মন্ত্রণালয়কে সভায় আমন্ত্রণ জানাবো। খায়েরি আরো বলেন,

বৈধ অভিবাসী কর্মীদের কথা চিন্তার পাশাপাশি মালয়েশিয়ায় অবস্থানরত অবৈধ অভিবাসীদেরকে ও বিবেচনা করা উচিত।সহজ নীতিতে অভিবাসীদের টিকা দেওয়া যায় কিনা সেই চিন্তা করতে হবে। আমরা যত বেশি টিকা দিতে পারব তত বেশি নি’রাপদ থাকবো। আমরা শুধু আমাদের দেশের জনগণের জন্য টিকা দিলে হবেনা। মালয়েশিয়া অবস্থানরত তিন মিলিয়ন বিদেশি নাগরিকদেরও দিতে হবে। কারণ বর্তমানে

আমরা করোনা ভাইরাস আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ছাড়িয়ে ঝুকিপূর্ণ তালিকায় পৌঁছে গেছি। যদি এই টিকা নিয়োগকর্তার মাধ্যমে প্রদান করতে বলি তাহলে অনেকেই এই টিকা নিতে অনিহা প্রকাশ বা মিথ্যার আশ্রয় নিতে পারে। তাহলে আমাদের ভ্যাকসিন কার্যক্রম সফল হবেনা। আমরা টিকা দেওয়ার বিষয়টি খুব সাবধানতার সাথে বিবেচনা করছি। জানুয়ারির শেষ সাপ্তাহে সভা অনুষ্ঠিত হতে পারে বলে আশা করা হচ্ছে। এ দিকে তিন মিলিয়ন অভিবাসীদের ফ্রী টিকা

দেয়ার বিষয়ে কমিটি সিদ্ধান্ত নেওয়ার পর এটি অনুমোদনের জন্য মন্ত্রীসভায় উপস্থাপন করা হবে বলেও জানান তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *