Categories
Uncategorized

সৌদি বাদশা সালমানের প্রতি সন্তুষ্টি প্রকাশ করে যা বললেন কাতারের আমির

উপসাগরীয় দেশ সৌদি আরবের বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ আল সৌদ ও দেশটির যুবরাজ মুহাম্মদ বিন সালমানকে আন্তরিকভাবে

ধন্যবাদ জানিয়ে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন উপসাগরীয় প্রতিবেশি দেশ কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল থানি। ৫ ডিসেম্বর মঙ্গলবার উপসাগরীয় আরব রাষ্ট্রসমূহের জন্য সহযোগিতা কাউন্সিল (জিসিসি) এর শীর্ষ সম্মেলনে অংশ নেওয়ার সময় সৌদি বাদশাহ ও তার

সঙ্গী প্রতিনিধিরা যে উষ্ণ অভ্যর্থনা জানিয়েছেন, সেজন্য ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন কাতারের আমির। আল-উলা থেকে ফিরে সৌদি বাদশাহ ও ক্রাউন প্রিন্সকে পাঠানো বার্তায় জিসিসি সম্মেলনে ভ্রাতৃত্বপূর্ণ পরিবেশ এবং সম্মেলন সফল করার প্রয়াসের জন্য প্রশংসা করেন শেখ তামিম বিন হামাদ আল থানি। শেখ তামিম বিন হামাদ আল থানি জোর দিয়ে বলেছেন,

এই সম্মেলনের ইতিবাচক ফলাফলগুলো জিসিসির পদযাত্রাকে শক্তিশালী করবে ও উপসাগরীয় অঞ্চল যে হু;মকির মুখোমুখি হয়েছে, সেসব মোকাবেলায় সদস্য দেশগুলোর মধ্যে সংহতি বাড়িয়ে তুলবে। গালফ সামিট শেষে কাতারের আমির আল-উলা ছেড়ে যান। সৌদি আরবের ক্রাউন প্রিন্স মুহাম্মদ বিন সালমান তাকে বিদায় জানাতে বিমানবন্দরে উপস্থিত ছিলেন এদিকে কাতারের সাথে সম্পর্ক পুনরুদ্ধারে সম্মত হলো

সৌদি, আমিরাত, বাহরাইন ও মিশর। খবরে জানা যায় সৌদি আরব ও তার তিনটি আরব মিত্র মঙ্গলবার রাজ্যের এক শীর্ষ সম্মেলনে দোহার সাথে পুরো সম্পর্ক পুনরুদ্ধারে সম্মত হয়েছে বলে জানিয়েছেন সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী। মিশরও উপস্থিত উপসাগরীয় আরব রাষ্ট্রসমূহের সমবেত হওয়ার পরে ফয়সাল বিন ফারহান আল সৌদ একটি সংবাদ সম্মেলনে বলেছিলেন যে, আকাশ পথ পুনরায় চালু হওয়াসহ কূটনৈতিক ও অন্যান্য সম্পর্ক পুনরুদ্ধারের চুক্তি বাস্তবায়নের গ্যারান্টি দেওয়ার

জন্য রাজনৈতিক ইচ্ছাশক্তি ও সৎ বিশ্বাস ছিল। এর আগে সৌদি আরব কাতারের সাথে আকাশ, স্থল ও নৌপথ খুলে দেয়।

Categories
Uncategorized

করোনা থেকে জাতিকে রক্ষায় ৩০ হাফেজের প্রতিদিন কোরআন খতম

করোনাভাইরাসের মহামারি থেকে দেশ ও জাতিকে রক্ষায় বিশেষ প্রার্থনা হিসেবে পঞ্চগড়ে প্রতিদিন এক খতম (শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পাঠ

করা) করে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করা হচ্ছে। গত বছরের মার্চে করোনা প্রাদুর্ভাব শুরু হওয়ার পর থেকে পঞ্চগড় কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের ঈমাম মুফতি আহমাদুল্লাহ মাসরূরর নেতৃত্বে ৩০ জন হাফেজ প্রতিদিন এক পারা করে ৩০ পারা কোরআন তেলাওয়াত করছেন।

আজ মঙ্গলবার (৫ জানুয়ারি) জেলা প্রশাসন সম্মেলন কক্ষে ইসলামিক ফাউন্ডেশন আয়োজিত করোনা বিষয়ক এক মতবিনিময় ও প্রশিক্ষণ কর্মশালায় ২২৪তম কোরআন খতম করেন এসব হাফেজ। এ নিয়ে বিশেষ মোনাজাতের পর জেলা প্রশাসক ড. সাবিনা ইয়াসমিন উপহার হিসেবে হাফেজদের হাতে একটি করে পাঞ্জাবি তুলে দেন।

পরে জেলা প্রশাসন ও ইউনিসেফ বাংলাদেশের সহযোগিতায় কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট সরকার মোহাম্মদ রায়হান। এতে জেলা প্রশাসক ড. সাবিনা ইয়াসমিন প্রধান অতিথি এবং পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ইউসুফ আলী বিশেষ অতিথি ছিলেন। এ অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উপ-পরিচলক শামীম সিদ্দিক। অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন পঞ্চগড় প্রেসক্লাবের

সভাপতি সফিকুল আলম। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের পর কর্মশালায় সিভিল সার্জন অফিসের মেডিকেল অফিসার ডা. তোফায়েল আহমদ করোনাভাইরাস নিয়ে প্রজেক্টরের মাধ্যমে সচেতনতামূলক প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন। শেষে দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন
ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মাস্টার ট্রেইনার মাওলানা মো. আব্দুস সামাদ। এতে পঞ্চগড় কেন্দ্রীয় মসজিদের পেশ ইমাম

মুফতি আহমাদুল্লাহ মাসরূর, সাবেক পেশ ঈমাম মুফতি আ ন ম আব্দুল করিমসহ বিভিন্ন মসজিদের ইমামরা উপস্থিত ছিলেন। দিনব্যাপী কর্মশালায় করোনা নিয়ে গুজব ও বিভ্রান্তির ক্ষতির দিক সর্ম্পকে ইসলামের দৃষ্টিভঙ্গি, করোনা সংক্রমণের হাত থেকে বাঁচার জন্য করণীয়, মানসিক স্বাস্থ্যসুরক্ষা, মৃত ব্যক্তির দাফন-কাফনে ইসলামের বিধান,

করোনাভাইরাসে মৃতব্যক্তির লাশ ধর্মীয় বিধান অনুসারে নিরাপদভাবে দাফন কাজে সুরক্ষা সামগ্রীর ব্যবহার ও জীবাণুমুক্তকরণ বিষয়ে ধারণা দেয়া হয়। পঞ্চগড় কেন্দ্রীয় মসজিদের পেশ ইমাম মুফতি আহমাদুল্লাহ মাসরূর বলেন, করোনা মহামারির শুরু থেকে দেশ ও জাতিকে করোনা মহামারি থেকে রক্ষায় বিশেষ প্রার্থনা করা হচ্ছে। আমরা ৩০ জন হাফেজকে নিয়ে একটি দল গঠন করেছি।

গত বছরের মে মাসের ২৭ তারিখ ৩০ জন হাফেজ এক পারা করে প্রথম ৩০ পারা অর্থাৎ এক খতম পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন। এরপর প্রতিদিন এভাবে এক খতম করে কোরআন তেলাওয়াত করা হচ্ছে। মুফতি আহমাদুল্লাহ মাসরূর আরও বলেন, জেলা প্রশাসক ড. সাবিনা ইয়াসমিন আমাদের এ কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেন। আমরা এখনো প্রতিদিন এক খতম করে কোরআন তেলাওয়াত করছি।

মঙ্গলবার ২২৪তম কোরআন খতম করে করোনাভাইরাস থেকে রক্ষায় বিশেষ মোনাজাত করা হয়। সূত্রঃ জাগো নিউজ২৪

Categories
Uncategorized

আজ আদালতে কাঠগড়ায় দাঁড়িয়ে বিচারকের উদ্দেশ্যে চিৎ’কার করে যা বললেন সাঈদী

আয়কর ফাঁকির অ’ভিযো’গে করা মা’মলায় আজ বুধবার মাওলানা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীকে আদালতে হাজির করা হয়। বুধবার সকাল

সাড়ে ৯টার দিকে তাকে বকশীবাজারে স্থাপিত বিশেষ জজ আদালত ১-এ আনা হয়। আদালতের কার্যক্রম শুরু হওয়ার আগে কাঠগড়ায় দাঁড়িয়ে তিনি বলেন, সবাইকে একদিন ম’রতে হবে। মিথ্যা মামলা দিয়ে আমাকে আর কত হয়রানি করা হবে? মাওলানা সাঈদীর আইনজীবী মুজাহিদুল

ইসলাম জানান, আসামির কাঠগড়ায় দাঁড়িয়ে আল্লামা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী আইনজীবী ও পুলিশের উপস্থিতিতে এসব কথা বলেন। আয়কর ফাঁ’কির অ’ভিযো’গে মাসুমা খাতুন নামে তৎকালীন সহকারী কর কমিশনার মাওলানা সাঈদীর বি’রু’দ্ধে এই মা’ম’লা দায়ের করেন। আজ বা’দী আ’দালতে প্রথমবারের মত সাক্ষ্য প্রদান করেন।

আংশিক জবা’ন’ব’ন্দি নিয়ে পুরান ঢাকার বকশীবাজার আলিয়া মাদরাসা মাঠে স্থাপিত অস্থায়ী ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৩-এর ভারপ্রাপ্ত বিচারক মোহাম্মদ নজরুল ইসলামের আদালত আগামী ১১ ফেব্রুয়ারি পরবর্তী তারিখ নির্ধারণ করা হয়। আসা’মি পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট আবদুস সোবহান তরফদার ও মুহা. মুজাহিদুল ইসলাম, রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট রেজাউল করিম

বাচ্চু। আয়কর ফাঁকির অ’ভিযো’গে মা’মলায় দেলোওয়ার হোসাইন সাঈদীর বি’রু’দ্ধে বুধবার সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয়েছে।

Categories
Uncategorized

প্রবাসীদের ফ্রি করোনা ভ্যাকসিন দেওয়া নিয়ে নতুন সিদ্ধান্ত নিলো মালয়েশিয়া

মালয়েশিয়ায় বসবাসরত অভিবাসীদের করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন দেয়া স্থগিত করেছে দেশটির সরকার। মঙ্গলবার (৫ জানুয়ারি) পুএাযায়ায়

জরুরি বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন সরবরাহের ‘অ্যাক্সেস গ্যারান্টি’ বিশেষ কমিটি সভায় অভিবাসীদের বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দেওয়ার সিদ্ধান্তটি স্থগিত করেছে। মালয়েশিয়ার ফরেন মিনিস্টার, হোম মিনিস্টার ও হিউম্যান রিসোর্স মিনিস্টারের সাথে যৌথ বৈঠক

শেষে কমিটির চেয়ারম্যান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী খায়েরি জামাল উদ্দিন সাংবাদিকের ফ্রী ভ্যাকসিন স্থগিতের বিষয়টি অবহিত করেন। মন্ত্রী বলেন, আমরা আরো কয়েক সাপ্তাহের মধ্যে কমিটির সভা করব। বিদেশীদের জন্য বিনামূল্যে এই টিকা দেওয়া উচিত কিনা সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণে তিন মন্ত্রণালয়কে সভায় আমন্ত্রণ জানাবো। খায়েরি আরো বলেন,

বৈধ অভিবাসী কর্মীদের কথা চিন্তার পাশাপাশি মালয়েশিয়ায় অবস্থানরত অবৈধ অভিবাসীদেরকে ও বিবেচনা করা উচিত।সহজ নীতিতে অভিবাসীদের টিকা দেওয়া যায় কিনা সেই চিন্তা করতে হবে। আমরা যত বেশি টিকা দিতে পারব তত বেশি নি’রাপদ থাকবো। আমরা শুধু আমাদের দেশের জনগণের জন্য টিকা দিলে হবেনা। মালয়েশিয়া অবস্থানরত তিন মিলিয়ন বিদেশি নাগরিকদেরও দিতে হবে। কারণ বর্তমানে

আমরা করোনা ভাইরাস আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ছাড়িয়ে ঝুকিপূর্ণ তালিকায় পৌঁছে গেছি। যদি এই টিকা নিয়োগকর্তার মাধ্যমে প্রদান করতে বলি তাহলে অনেকেই এই টিকা নিতে অনিহা প্রকাশ বা মিথ্যার আশ্রয় নিতে পারে। তাহলে আমাদের ভ্যাকসিন কার্যক্রম সফল হবেনা। আমরা টিকা দেওয়ার বিষয়টি খুব সাবধানতার সাথে বিবেচনা করছি। জানুয়ারির শেষ সাপ্তাহে সভা অনুষ্ঠিত হতে পারে বলে আশা করা হচ্ছে। এ দিকে তিন মিলিয়ন অভিবাসীদের ফ্রী টিকা

দেয়ার বিষয়ে কমিটি সিদ্ধান্ত নেওয়ার পর এটি অনুমোদনের জন্য মন্ত্রীসভায় উপস্থাপন করা হবে বলেও জানান তিনি।

Categories
Uncategorized

দীর্ঘ সাড়ে তিন বছর পর কাতার-সৌদি বর্ডার খুলে দেয়া হচ্ছে

কাতারের একমাত্র স্থলসীমান্ত আবু সামরা বর্ডারের ওপারে সৌদিআরব। আগামীকাল ৫ জানুয়ারি সৌদিআরবে যে সম্মেলন অনুষ্ঠিত হচ্ছে, সেই

সম্মেলন থেকে দীর্ঘ সাড়ে তিন বছরের বেশি সময় ধরে চলমান কাতার সংকট সমাধানের ঘোষণা আসতে পারে। তাই কাতার-সৌদির এই সীমান্ত খোলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন দু দেশের কর্মকর্তারা। কাতারের বিশেষ কিছু সূত্রে এই খবর জানা গেছে। এমনকি সব ঠিক থাকলে আর কিছুক্ষণ পরই কুয়েত একটি বিশেষ ঘোষণা প্রকাশ করতে

পারে আগামীকালের সম্মেলন নিয়ে। গত ২০১৭ সালের ৫ জুন এই সীমান্ত বন্ধ করে দেয় সৌদিআরব ও কাতার। সে সময় কাতারের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্নের ঘোষণা দেয় আরব আমিরাত, বাহরাইন ও মিসরও। ইতোমধ্যে আজ সন্ধ্যায় কুয়েতের পররাষ্ট্র মন্ত্রী কুয়েতের আমিরের বিশেষ পয়গাম নিয়ে দোহায় এসে দেখা করেছেন কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আলথানির সাথে।

তবে ঠিক কখন থেকে দু দেশের এই সীমান্ত খূলে দেওয়া হবে, তা এখনো কোনো পক্ষ নিশ্চিতভাবে ঘোষণা করেনি।

Categories
Uncategorized

ফাঁ’দে পা দিয়ে ফেঁ’সে গেছেন মেয়র তাপসঃ সাঈদ খোকন

রাজধানী ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র হিসেবে দায়িত্ব নেয়ার পরে সব ধরনের দু’র্নী’তি, অবৈ’ধ দখ’ল বা অন্যান্য

অনিয়ম বন্ধ করার প্রতি’শ্রুতি দেন ব্যারিস্টার ফজলে নুর তাপস। প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী দৃশ্যমান কিছু কাজও শুরু করেন। নতুন মেয়রের উদ্যোগের মধ্যে সবচেয়ে আলোচনায় এসেছে ফুলবাড়িয়া মার্কেটের দোকানদারদের উ’চ্ছেদ। কিন্তু এই উ’চ্ছেদ অভি’যান নিয়ে শুরু হয়েছে

বহুমুখি বি’তর্ক। দোকান মালিকরা অভি’যোগ করেন, আগের মেয়র সাঈদ খোকনের প্রশাসন বিভিন্ন অংকের অর্থ নিয়ে দোকান বরাদ্দ দিয়েছে। নতুন মেয়র সেই অভি’যোগ খারিজ করে জানান, সিটি করপোরেশন কোনো অর্থ পায়নি। সাবেক ও বর্তমান দুই মেয়রের মধ্যে এক ধরনের ঠা’ন্ডা ল’ড়া’ই শুরু হয়। এখনো চলছে সেই অবস্থা। এর মধ্যে নতুন করে কড়া মন্তব্য করেছেন

সাবেক মেয়র সাঈদ খোকন। আজ বৃহস্পতিবার একটি শীর্ষস্থানীয় দৈনিক পত্রিকাকে দেয়া সাক্ষাৎকারে সাঈদ খোকন বলেছেন, ‘দেলুর ফাঁদে পা দিয়ে মেয়র তা’পস ফেঁ’সে গেছেন। তাকে ভুল বুঝিয়ে মার্কেট ভা’ঙি’য়ে নতুন ভবন নির্মাণ করতে চায় দেলু। কারণ নতুন ভবন নির্মাণ হলে মার্কেট সমিতির এই নেতা দোকান বরাদ্দ দিয়ে টাকা ইনকাম করতে পারবে।’ মেয়র তাপসের প্রশাসন বর্তমানে যেভাবে ফুলবাড়িয়া

মার্কেটের দোকানদারদের উচ্ছেদ করেছে সেটা অ’বৈধ বলেও মন্তব্য করেন সাঈদ খোকন। মার্কেট উচ্ছেদের ফলে তাপস এখন পুরান ঢাকায় সমালোচনার মুখে পড়েছেন এবং দলের ক্ষ’তি করছেন মন্তব্য করে তিনি বলেন, ‘তাপস নিজে দেলুকে দিয়ে এই ধরনের নোং’রা’মি করাচ্ছে, যার মাধ্যমে সে তার নিজের ও দলের (আওয়ামী লীগ) ভাবমূর্তি ক্ষু’ণ্ন করছে।’ ফুলবাড়িয়া মার্কেটের নামে অর্থ আ’ত্মসা’তের অভি’যোগে সাঈদ খোকনসহ সাতজনের বি’রু’দ্ধে আদালতে মাম’লা

হয়েছে। মামলায় অভি’যোগ করা হয়েছে, দোকান বরাদ্দের জন্য আ’সা’মিদের প্রায় ৩৫ কোটি টাকা দেওয়া হয়েছে।

Categories
Uncategorized

কাতারে বাংলাদেশি গৃহকর্মীদের জন্য ভিসার আবেদন শুরু

কাতারে বাংলাদেশিদের জন্য শখছি ভিসার আবেদন সম্পর্কিত সব কার্যক্রম এখন থেকে বাংলাদেশে অবস্থিত কাতার ভিসা সেন্টারে সম্পন্ন হবে।

কাতারের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে এই তথ্য জানিয়েছে আজ ৬ জানুয়ারি বুধবার থেকে এই সিদ্ধান্ত কার্যকর করা হবে। এর ফলে এখন থেকে কাতারে যেসব নাগরিক নিজেদের ব্যক্তি ভিসায় বাংলাদেশ থেকে কাউকে নিয়ে আসতে চান, তারা এ সম্পর্কিত আবেদন কাতার স্বরাষ্ট্র

মন্ত্রণালয়ের পরিবর্তে ঢাকায় অবস্থিত কাতার ভিসা সেন্টারে জমা দেবেন। সাধারণত শখছি ভিসায় গাড়িচালক, মালি ও বাবুর্চিসহ ঘরোয়া কাজের জন্য কর্মী নিয়োগ দেওয়া হয়ে থাকে। সৌদি আরবের বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ আল সৌদ এবং ক্রাউন প্রিন্স মুহাম্মদ বিন সালমানকে আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ জানিয়ে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করলেন

কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল থানি। গতকাল মঙ্গলবার জিসিসি শীর্ষ সম্মেলনে অংশ নেওয়ার সময় সৌদি বাদশাহ এবং তার সঙ্গী প্রতিনিধিরা যে উষ্ণ অভ্যর্থনা জানিয়েছেন, সেজন্য ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন কাতারের আমির। আল-উলা থেকে ফিরে সৌদি বাদশাহ ও ক্রাউন প্রিন্সকে পাঠানো বার্তায় জিসিসি সম্মেলনে ভ্রাতৃত্বপূর্ণ পরিবেশ এবং সম্মেলন সফল করার প্রয়াসের

জন্য প্রশংসা করেন শেখ তামিম বিন হামাদ আল থানি। তিনি জোর দিয়ে বলেছেন, এই সম্মেলনের ইতিবাচক ফলাফলগুলো জিসিসির পদযাত্রাকে শক্তিশালী করবে এবং উপসাগরীয় অঞ্চল যে হুমকির মুখোমুখি হয়েছে, সেসব মোকাবেলায় সদস্য দেশগুলোর মধ্যে সংহতি বাড়িয়ে তুলবে। গালফ সামিট শেষে কাতারের আমির আল-উলা

ছেড়ে যান। সৌদি আরবের ক্রাউন প্রিন্স মুহাম্মদ বিন সালমান তাকে বিদায় জানাতে বিমানবন্দরে উপস্থিত ছিলেন।

Categories
Uncategorized

কাতারের সঙ্গে বিরোধ অবসানে ঐতিহাসিক চুক্তি করল সৌদি

কাতারের সঙ্গে বিরোধ অবসানে ঐতিহাসিক চুক্তি করেছে সৌদি আরবসহ উপসাগরীয় দেশগুলো। সংহতি ও স্থিতিশীলতার চুক্তি বলে মন্তব্য

করেছেন সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান। একই সঙ্গে ইরানের হুমকি মোকাবিলার ডাক দেন তিনি। চুক্তি হওয়ায় স্বাগত জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়। মঙ্গলবার (০৫ জানুয়ারি) সৌদি আরবের আল-উলা শহরে আয়োজিত গালফ কো-অপারেশন কাউন্সিলের সম্মেলনে

কাতারের সঙ্গে বিরোধ অবসানে ঐতিহাসিক চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান। এরপর চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন কাতারের আমির ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রধানমন্ত্রী। চুক্তিটি উপসাগরীয় অঞ্চলে ঐক্য ও স্থিতিশীলতা নিশ্চিত করবে বলে জানান সৌদি যুবরাজ। এ সময় চুক্তিতে মধ্যস্থতা করায় যুক্তরাষ্ট্র ও কুয়েতকে

ধন্যবাদ দেন সালমান। একই সঙ্গে ইরানের হুমকি মোকাবিলায় একসঙ্গে কাজ করার আহ্বান জানান তিনি। মোহাম্মদ বিন সালমান জানান, আমাদের অঞ্চলের উন্নতির জন্য ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্টা জরুরি। এই চুক্তি সেই কাজটি করবে। একই সঙ্গে ইরান যা করছে তা এই অঞ্চলের জন্য হুমকি। তাদের বিরুদ্ধে একসঙ্গে ব্যবস্থা নেওয়ার সময় এসেছে। পরে সংবাদ সম্মেলনে সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, কাতারের সঙ্গে

সম্পর্ক আবার পুরোপুরি চালু করতে রাজি হয়েছে সৌদি আরবসহ তিন আরব মিত্র দেশ। সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফয়সাল বিন ফারহান আল সৌদ জানান, অবশেষে আমরা সবাই একটি জায়গায় সম্মত হয়েছিলাম তা হলো এই অঞ্চলের নিরাপত্তা ও শান্তি তৈরিতে একসঙ্গে কাজ করা। এখন থেকে কাতারের সঙ্গে আবার কূটনৈতিক সম্পর্ক চালু হবে।

এদিকে কাতারের সঙ্গে উপসাগরীয় দেশগুলোর নতুন এই চুক্তিতে স্বাগত জানিয়েছেন আরব লীগ মহাসচিব। চুক্তিটি ওই অঞ্চলে শান্তি ফিরিয়ে আনবে বলে মত জর্ডানের উপপ্রধানমন্ত্রীর। ২০১৭ সালে সন্ত্রাসবাদে সমর্থন ও ইরানের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতার অভিযোগে কাতারের ওপর বিভিন্ন অর্থনৈতিক ও কূটনৈতিক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে উপসাগরীয় দেশগুলো।

প্রায় সাড়ে তিন বছর পর সোমবার কাতারের ওপর থেকে সব অবরোধ প্রত্যাহারের ঘোষণা দেয় সৌদি আরব।

Categories
Uncategorized

সর্বপ্রথম কোরআনের অডিও রেকর্ড বের করেন এই ক্বারী

ইতিহাসে সর্বপ্রথম পূর্ণ কোরআনের অডিও রেকর্ড বের হয় মিশরীয় কারি আল হুসারির কন্ঠে কোরআন তিলাওয়াতের মাধ্যমে বিশ্বকে মোহাচ্ছন্ন

করতে পারা মিশরীয় কারীদের একজন শায়খ কারি মাহমুদ খলিল আল হুসারি। দেশটির রেডিও পথম পরিচালক আব্দুল খালেক আব্দুল ওহহাব শায়খ হুসারি সম্পর্কে বলেন, তিনি ছিলেন কোরআনের শিক্ষক, মিশরে কোরআন শিক্ষার ক্ষেত্রে তিনি অদ্বিতীয় ব্যক্তি। মিশরের প্রসিদ্ধ কারি

মাহমুদ আল হালবায়ী বলেন, শায়খ আল হুসারি এমনভাবে কোরআন পাঠ করতেন যেন পবিত্র এ গ্রন্থে বর্ণিত শরিয়তের হুকুম আহকাম ও বিধানাবলি স্পষ্ট ভাষায় বর্ণনা করছেন। আরো পড়ুন-আরব আমিরাতে উদ্বোধন করা হলো বিশ্বের সর্ববৃহৎ কোরআন একাডেমি আরব আমিরাতের শারজার শাসক শেখ সুলতান বিন মুহাম্মদ বিশ্বের সবচেয়ে বড় কোরআন একাডেমির উদ্বোধন করছেন।

৭৫ হাজার স্কয়ার মিটার বিস্তৃত একাডেমিটি ইসলামি ঐতিহ্যের ৮ কোনা তারকা আকৃতির। ৩৪টি গম্বুজ রয়েছে। এতে সাতটি বৈজ্ঞানিক ও ঐতিহাসিক জাদুঘর রয়েছে। একাডেমিতে ১৫টি সেকশনে কোরআনের ৬০টি পাণ্ডুলিপির প্রদর্শনী করা হচ্ছে। একেক সেকশনে একেক শতকের পাণ্ডুলিপি। মোট ৩০৮ কপি পবিত্র প্রত্নতাত্ত্বিক কোরআন প্রদর্শন করা হচ্ছে। এ ছাড়া একাডেমিতে আছে কাবা শরিফে ব্যবহৃত ২৮টি কালো গিলাপ। সবচেয়ে পুরনো গিলাপটি ৯৭০ হিজরি সনের।

বৃহত্তম কোরআন একাডেমিটি কেবল জাদুঘর নয়, এতে অন্যান্য কার্যক্রম ও প্রোগ্রাম পরিচালনার ব্যবস্থাও রাখা হয়েছে।

Categories
Uncategorized

কিস্তি আদায় করতে এসে তরুণীর বিয়ে ভাঙলো এনজিও কর্মীরা

ঋণের কিস্তি আদায় করতে গিয়ে এক তরুণীর বিয়ে ভেঙে দেয়ার অ’ভিযোগ উঠেছে এক এনজিও সংস্থার কর্মক’র্তাদের বি’রুদ্ধে। সোমবার

বাগেরহাটের ফকিরহাটের সদর ইউপির উত্তরপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ওই তরুণীর মা ইয়াসমিন বেগম ফকিরহাট মডেল থা’না ও ইউএনও বরাবর এ বিষয়ে প্রতিকার চেয়ে লিখিত অ’ভিযোগ করেছেন। অ’ভিযোগে ইয়াসমিন বেগম জানান, তিনি একজন শারীরিক প্রতিব’ন্ধী

ও অসহায় নারী। তার স্বামী সরোয়ার শেখ একজন দিনমজুর। অভাবে পড়ে তিনি ‘নবোলক পরিষদ’ নামের স্থানীয় একটি এনজিও থেকে কিছু টাকা ঋণ নেন, যা নিয়মিত পরিশোধও করছিলেন। মহামা’রিকালে সমস্যা হওয়ায় কয়েকটা কিস্তি তিনি দিতে পারেননি। সম্প্রতি তিনি কাজের উদ্দেশ্যে ঢাকায় যান এবং প্রায় এক সপ্তাহ আগে মে’য়ের

বিয়ের জন্য বাড়িতে আসেন। তিনি আরো জানান, গ্রামবাসীর সহায়তায় ২৮ ডিসেম্বর মে’য়ের বিয়ের আয়োজন করেন। খবর পেয়ে বিয়ের দিনই এনজিওর লোকজন বাড়িতে এসে ঋণের টাকার জন্য চাপ সৃষ্টি করাসহ গালিগালাজ করে। এ সময় তিনি মে’য়ের বিয়ের পর ঋণের টাকা ফেরত দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেন এবং তাদের চলে যেতে বলেন। এছাড়া এনজিওর লোকজন ছে’লে

পক্ষকে বিয়ে না দিয়ে চলে যেতে বলে। পরে স্থানীয় লোকজন ছে’লে পক্ষকে অনেক অনুরোধের পরও তারা চলে