Categories
Uncategorized

সবাই পাস, জিপিএ-৫ পেল ১ লাখ ৬১ হাজার ৮০৭ জন

২০২০ সালের না হওয়া এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষায় শতভাগ শিক্ষার্থীকে উত্তীর্ণ করা হয়েছে। তবে এসএসসি ও জেএসসি এবং সমান

পরীক্ষাগুলোর ভিত্তিতে পরীক্ষার্থীদের গ্রেড পয়েন্ট তৈরি করা হয়েছে। ফলাফলে সারাদেশে ৯টি সাধারণ শিক্ষা বোর্ড এবং মাদরাসা ও কারিগরি শিক্ষা বোর্ড মিলিয়ে জিপিএ৫ পেয়েছে ১ লাখ ৬১ হাজার ৮০৭ জন পরীক্ষার্থী। সবচেয়ে বেশি জিপিএ৫ পেয়েছে ঢাকা বোর্ডের পরীক্ষার্থীরা,

সবচেয়ে কম সিলেটে। শনিবার (৩০ জানুয়ারি) সকালে রাজধানীর সেগুনবাগিচায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে ২০২০ সালের না হওয়া এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল ঘোষণা করা হয়। অনুষ্ঠানে সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে যুক্ত হয়ে মাউস ক্লিকের মাধ্যমে ফলপ্রকাশ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। অনুষ্ঠানে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা

ইনস্টিটিউটে উপস্থিত ছিলেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি ও শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান নওফেলসহ শিক্ষা বোর্ডগুলোর চেয়ারম্যান এবং সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা। এইচএসটি ও সমমানে গত বার পাসের হার ছিল ৭৩ দশমিক ৯৩ শতাংশ। তার আগের বছর ছিল ৬৬ দশমিক ৬৪ শতাংশ। এবার জিপিএ-৫ পেয়েছে ১ লাখ ৬১ হাজার ৮০৭ জন শিক্ষার্থী। গত বার এই সংখ্যা ছিল ৪৭ হাজার ২৮৬। তার আগের বছর ছিল

২৯ হাজার ২৬২। উল্লেখ্য, করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের কারণে এবার পরীক্ষা ছাড়া এসএসসি, জেএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফলের ভিত্তিতে এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের গড় মূল্যায়ন করা হয়েছে। ২০২০ সালে ১১টি শিক্ষা বোর্ডের ১৩ লাখ ৬৭ হাজার ২৭৭ জন শিক্ষার্থীর এবার এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা দেওয়ার কথা ছিল।

প্রতি বছরের মতো ১ এপ্রিল পরীক্ষা শুরু হওয়ার কথা থাকলেও করোনা মহামারির কারণে পরীক্ষা বাতিল করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *