Categories
Uncategorized

নিজের কথায় নিজেই ফাঁ’সলেন মামুনুল হক

নারী কেলেঙ্কারি ঢাকতে নতুন বিতর্কের জন্ম দিচ্ছেন মামুনুল হক। রিসোর্টে দ্বিতীয় স্ত্রীর কথা বললেও, নাম বলেছেন প্রথম স্ত্রীর। ফাঁস হওয়া

ফোনালাপেও পাওয়া গেছে নানা অসঙ্গতি। নিজের সাফাই গাইতে প্রশ্নবিদ্ধ ব্যাখ্যা দিচ্ছেন ইসলামের। ঘটনার শুরু এখান থেকে। এক নারীকে নিয়ে সোনারগাঁওয়ের একটি রিসোর্টে বেড়াতে যান হেফাজতে ইসলামীর যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হক। সন্দেহজনক মনে হওয়ায় রিসোর্টের মধ্যেই

তাকে অবরুদ্ধ করে স্থানীয়রা। এসময় ওই নারীকে নিজের স্ত্রী বলে দাবী করেন তিনি। যদিও যে নাম বলেছিলেন তার সঙ্গে বেমিল আছে নারীর নিজের মুখে বলা নামে। এরপর মামুনুলকে ছাড়াতে শুরু হয় তার অনুসারীদের তান্ডব। ঘন্টাখানেকের মধ্যে পুরো রিসোর্ট কছনছ করে দেয় তারা। সেখান থেকে অজ্ঞাত স্থানে চলে যায় মামুনুল হক।

এ ঘটনার পর থেকেই একের পর এক ফোনালাপ ফাঁস হতে শুরু করে মামুনুলের। কখনো প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে কখনো আবার ধরা পড়া নারীর সঙ্গে। আরেকটি ফোনালাপে ওই নারীর অবস্থান সম্পর্কে জানতে চায় মামুনুল। আরেকটি ফোনালাপে শোনা যায়, রিসোর্টের ঘটনা নিয়ে সাবধাণ করা হচ্ছে ওই নারীকে। এক বিতর্কের সূরাহা না হতেই আবারো নতুন

বিতর্কের জন্ম দিলেন মামুনুল। স্ত্রীকে খুশি করতে মিথ্যা বলা জায়েজ বল ফেইসবুকে একটি ভিডিও বার্তা দেন তিনি। কেউ কেউ প্রশ্ন তুলেছেন, ফাঁস হওয়া ফোনালাপের সত্যতা নিয়ে। যারা এটি ফাঁস করেছে তাদের বিরু;দ্ধে এবার আইনি ব্যবস্থার হু;মকি দিয়েছেন তিনি।

মামুনুলের নানামুখী বক্তব্যে এনিয়ে ধোঁয়াসা আরো বেড়েছে। তবে, তার এমন কর্মকান্ডে ক্ষুব্ধ আলেম সমাজ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *