Categories
Uncategorized

মুনিয়ার লেখা ডায়েরি থেকে চাঞ্চল্যকর তথ্য পেয়েছে পুলিশ

রাজধানীর গুলশানে একটি ফ্ল্যাট থেকে মোসারাত জাহান মুনিয়ার (২১) ঝু;;ল;ন্ত ম;;রদে;হ উ;দ্ধা;রের ঘ;টনায় দায়ের হওয়া মামলার

এজাহারে চা;ঞ্চ;ল্যক;র তথ্য দিয়েছেন তার বড় বোন ও মামলার বা;দী নুসরাত জাহান। নুসরাত পুলিশের কাছে মুনিয়ার লেখা একটি ডায়েরি জমা দিয়েছেন। ধারণা করা হচ্ছে এ ডায়েরি থেকে আরও তথ্য বেরিয়ে আসবে। এজাহারে বলা হয়েছে, মুনিয়ার লেখা প্রেম কাহিনির ডায়েরি

পুলিশ হেফাজতে নেয়। এতে আরও বলা হয়েছে, মোসারাত জাহান (২১) মিরপুর ক্যান্ট. পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষার্থী। দুই বছর আগে মামলার আ;সা;মির সঙ্গে মোসারাতের পরিচয় হয়। পরিচয়ের পর থেকে তারা বিভিন্ন রেস্তোরাঁয় দেখা করতেন এবং সব সময় মোবাইলে কথা বলতেন। একপর্যায়ে দুজনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

এজাহারে আরও বলা হয়, বোনের মাধ্যমে তিনি জানতে পারেন, আ;সা;মি তাকে বিয়ে করে বিদেশে স্থায়ী হবেন। কারণ, দেশে থাকলে আ;সা;মির বাবা-মা আ;সা;মিকে কিছু না করলেও তার বোনকে মে;;রে ফেলবেন। ১ মার্চ থেকে আ;সা;মি মাঝে মাঝে ফ্ল্যাটে আসা-যাওয়া করতেন। রাজধানীর গুলশানের ১২০ নম্বর রোডের ওই বাড়িতে গেল মাসের

১ তারিখে ওঠেন মুনিয়া। বাসাটির ভাড়া ছিল ১ লাখ টাকা। বাসায় একাই থাকতেন কলেজছাত্রী মুনিয়া। খবর পেয়ে সোমবার সন্ধ্যায় বাসার তিন তলার ফ্ল্যাট থেকে গ;লা;য় ওড়না পেঁচানো অবস্থায় ঝু;;ল;ন্ত লা;;শটি উ;দ্ধার করে গুলশান থানা পুলিশ। এ ঘট;নায় আ;ইনগত বিষয় বিবেচনা করে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানায় পুলিশ। সম্প্রতি ওই শিল্পপতির

সঙ্গে মুনিয়ার ম;নোমা;লি;ন্যের কারণেই এ আ;;ত্মহ;;ত্যা ঘট;তে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে পুলিশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *