Categories
Uncategorized

দুই দফায় ভূমিকম্পে আতংকিত মানুষ

রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে দুই দফায় ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে। আজ বুধবার সকাল ৮টা ২৫ মিনিটে রিখটার স্কেলে ৬ দশমিক ৪

মাত্রার এই ভূমিকম্প অনুভূত হয়। ভারতের আসামে ভূকম্পনটির উৎপত্তিস্থল ছিল বলে জানা যায়। কয়েক সেকেন্ড স্থায়ী হওয়া এই ভূমিকম্পে দুলেছে কুড়িগ্রাম ও লালমনিরহাট। এছাড়া রাজধানীর বিভিন্ন স্থানেও ভবন দুলে উঠে। এতে আতংকিত হয়ে পরে মানুষ। বেশ কয়েক সেকেন্ড

স্থায়ী এ ভূকম্পনের পর আরও কয়েকটি প্রতিঘাত টের পাওয়া যায়। এ সময় আতঙ্কে রাজধানীসহ সারাদেশেই ঘর বাড়ি, দোকানপাট ও প্রতিষ্ঠান ছেড়ে খোলা রাস্তায় নেমে আসে মানুষ। অনেকেই নিরাপদ আশ্রয়ের সন্ধানে ছোটাছুটি করে। হবিগঞ্জ শহরে সকাল ৮টা ২২ মিনিটের দিকে অন্তত ১৫ থেকে ১৬ সেকেন্ড ভূকম্পন হয়। এ সময় ভবনগুলো

কিছু সময় ধরে কাঁপছিল। ঘুমন্ত মানুষজন ভূমিকম্প টের পেয়ে ঘুম থেকে জেগে উঠে আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। এদিকে, পাশ্ববর্তি দেশ ভারতে ভূমিকম্প অনুভূতি হয়। সেখানেও দুই দফায় ভূমিকম্প হয়। রিখটার স্কেলে ৬.৪ মাত্রার ভূকম্পনটি ভারতের উত্তর-পূর্ব দিকে আঘাত হানে। উত্তরবঙ্গ এবং উত্তর-পূর্বের অন্যান্য অংশে কম্পন অনুভূত হয়েছিল। ন্যাশনাল সেন্টার অফ সিসমোলজি অনুসারে, রিখটার স্কেলে ৬.৪ মাপের

ভূমিকম্পের উদ্ভব হয়েছিল আসামের তেজপুরে। প্রথম ভূমিকম্পটি সকাল ৭টা ৫১ মিনিটে (ভারতীয় সময়) রেকর্ড করা হয়েছিল এবং সিসমোলজি কেন্দ্র অনুসারে এটি আসামের তেজপুর থেকে ৪৩ কিলোমিটার পশ্চিমে কেন্দ্রিক ছিল। প্রথম বড় ভূমিকম্পের পরে দুটি আফটার শক ছিল, একটি সকাল সকাল ৭ টা ৫৫ মিনিটের দিকে । বড় ভূমিকম্পের পরে আসামের ভবনগুলিতে ফাটল ধরা পড়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল আটটার দিকে আসাম ও উত্তরবঙ্গের স্থানীয়রা ভূমিকম্পের

কথা জানিয়েছেন। যারা ভূমিকম্প সম্পর্কে টুইট করেছেন তাদের মধ্যে আসামের মন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব সরমাও ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *