Categories
Uncategorized

বিদেশ যেতে করোনা টেস্ট করাতে ঢাকায়, লা’শ মিলল ফ্লাইওভারে

রাজধানীর খিলক্ষেতের কুড়িল ফ্লাই’ওভারে দুবাই ফেরত সুভাষ চন্দ্র সূত্রধরের (৩২) গলায় গা’মছা পেঁচানো লা’শ উ’দ্ধার করেছে পু’লিশ।

বৃহস্পতিবার (৬ মে) কুড়িল ফ্লাই’ওভারে ভোর সাড়ে ৫টায় গলায় গাম’ছা পেঁচানো লা’শ র”ক্তাক্ত অব’স্থায় উ’দ্ধার করা হয়। পরে তার লা’tশ ময়না’তদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ম’র্গে পাঠানো হয়। নি’হ’তের ভা’য়’রা শ্রী কৃষ্ণ বাবু বলেন, দীর্ঘ

৫ বছর ধ’রে সুভা’ষ দুবা’ইতে থাকত। গত বছরের নভেম্বর মাসের ১৩ তারিখে ছুটিতে দেশে আসে। এরপর ২১ নভেম্বর বিয়ে করেন। তার ‘ছুটি শেষে শনিবার (৮ মে) মধ্য’রাতে তার দুবা’ই চলে যাও’য়ার কথা। তিনি বলেন, কিন্তু দুবাই যেতে হলে এখন করোনা টে’স্টের নেগে’টিভ রি’পোর্ট লাগে। গতকাল রাতে তি’নি বগু’ড়ার শিব’গঞ্জ থেকে

মাই’ক্রো’তে করে করো’না টে’স্টের জন্য ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা হন। পরে আমার শাশুড়ি তাকে ফোনে না পেয়ে আমাকে ফোন করেন।আমি রাত ৪টার সময় এয়া’রপোর্ট ও খিল’ক্ষেত এলা”কায় তাকে খুঁজ’তে যাই। পরে একটি নম্বর থেকে খিল’ক্ষেত থানার পুলি’শ আমাকে ফোন করে কুড়িল ফ্লাই’ওভারে আসতে বলে। তখন ভোর ৫টা বাজে। তার কাছে পা’সপোর্ট ছাড়া কিছুই পাওয়া যায়নি। শ্রী কৃ”ষ্ণ আরও

বলেন, যেহেতু নতুন বিয়ে হয়েছে তাকে ওভাবে আমি খেয়াল করে দেখিনি। পাস’পোর্টের সঙ্গে তার বর্তমান ছবির কোন মিল না পেয়ে বাড়িতে যোগা’যোগ করে কন’ফার্ম হই। তার গ’লায় গ্রামীণ চেকের একটি গা’মছা পেঁচানো র’ক্তা’ক্ত অব’স্থায় পাওয়া যায়। শনিবার রাতে তার দুবাই ফেরত যাওয়ার কথা। কিন্তু এখন সে দুনিয়া ছেড়ে চলে গেল।

নি’হ’তের বিয়াই রিপন কুমার ঢাকা পোস্টকে বলেন, সুভা’ষের আরও তিন ভাই দু’বাই থাকেন। তার পরিবার জানিয়েছে বগু’ড়ার শি’বগ’ঞ্জের মোকা’মতলা থেকে তিনি মাই’ক্রো’তে ঢাকার উ’দ্দেশ্যে রওনা দেন। শনি’বার মধ্য’রাতে তার দুবাই চলে যাওয়ার কথা ছিল।
টি’কেট কন’ফার্ম করা ছিল তার। টিকিটের ৪০ হাজার টাকাসহ ৬০ হাজার টাকা ছিল।

তাদের এই টাকা দেও’য়ার কথা ছিল। কীভাবে এই ঘ’টনা ঘটেছে সেটা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। তার বাড়ী বগু’ড়া জেলার শিব’গঞ্জ থানার বড় নারা’য়ন’পুর গ্রামে। নি’হ’ত সু’ভাষ মৃ’ত সুবীর চন্দ্র সূত্র’ধরের ছেলে। পাঁচ ভাই ও তিন বোনের মধ্যে তিনি সবার ছোট। ল’ক্ষেত থানার উপ-পরি’দর্শক (এসআই) শাহিনুর রহমান বলেন,

আমরা ভোরে খবর পাই গ’লা’য় গা’মছা পেছানো র’ক্তা’ক্ত অব’স্থায় একটি ‘লা’শ ফ্লাইও’ভারে পড়ে আছে। দ্রু’ত ঘট’না’স্থলে যাই। গিয়ে দেখি গ’লা’য় গামছা পেঁচানো র’ক্তা’ক্ত অব’স্থায় উপু’ড় হয়ে পড়ে আছে। তিনি আরও বলেন, আমরা তার কাছ থেকে পাস’পোর্ট পেয়ে তার পরি’চয় নি’শ্চিত হয়ে পরি’বারের সঙ্গে যোগা’যোগ করি। তার পাস’পোর্ট দেখে আমরা নি’শ্চিত হয়েছি তিনি দু’বাই থাকতেন। গত বছ’রের ১৩ নভেম্বর তিনি দেশে আসেন। প্রাথ’মিকভাবে ধা’রণা করছি, গামছা পার্টি তাকে হ’ত্যা করেছে। আম’রা ত’দন্ত করছি।

পরিবা’রের লোক থা’নায় মা’ম’লা ক’রার জন্য গেছেন। ময়’না’তদন্ত শে’ষে তার মৃ’ত্যু’র সঠিক কারণ জা’না যাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *