Categories
Uncategorized

৩ লাখ টাকা পাওয়ার কথা অস্বীকার, ফুটেজ দেখে নির্বাক রিকশাচালক

রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের (আরএমপি) সিসি ক্যা’মেরার ফু’টেজ দেখে ব্যাংক কর্মকর্তার হারিয়ে যাওয়া দুই লাখ ৯৪ হাজার টাকা

উ’দ্ধার করা হয়েছে। সোমবার (৩১ মে) সকাল ১০টার দিকে আরএমপির বোয়ালিয়া মডেল থানা পুলিশ নগরীর ডিংগাডোবা এলাকায় অভিযান চালিয়ে টাকাগুলো উ’দ্ধার করে। এ সময় টাকা নিয়ে পা’লিয়ে যাওয়া অটোরিকশাচালক আনোয়ার হোসেনকে (৩২) আট’ক করা হয়। দুপুরে

নিজ কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য তুলে ধরেন আরএমপি কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিক। আরএমপি কমিশনার বলেন, রবিবার (৩০ মে) সকাল ৭টা ১২ মিনিটের দিকে ব্যাংক কর্মকর্তা মোক্তাদির আহমেদ রাজপাড়া থানার বহরমপুর মোড় থেকে ভদ্রা যাওয়ার জন্য অটোরিকশায় ওঠেন। তার কাছে একটি ব্যাগ ছিল। ব্যাগে দুই লাখ

৯৪ হাজার টাকা, মোবাইল নম্বর, অফিসের আইডি কার্ড এবং তার বাড়ি ও অফিসের চাবি ছিল। মোক্তাদির আহমেদ সকাল সাড়ে ৭টায় ভদ্রা মোড়ে পৌঁছান। এরপর ভদ্রা বাস কাউন্টারে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই টাকার ব্যাগসহ অটোরিকশাচালক উ’ধাও হয়ে যান। তিনি অটোরিকশাকে আশপাশে খোঁজাখুঁজি করেও পাননি। এরপরই বোয়ালিয়া মডেল থানায় জিডি করেন। সেই সঙ্গে

পুলিশ কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিককে বিষয়টি অবগত করেন। পুলিশ কমিশনার আরএমপি সা’ইবা’র ক্রা’ইম ইউ’নিটের ইনচার্জ সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার উৎপল কুমার চৌধুরীকে অটোরিকশাচাললকে আ’টক ও টাকা উ’দ্ধা’রের নির্দেশ দেন। সাইবার ক্রা’ইম ইউনিট দ্রুত সময়ের মধ্যে ঘটনাস্থলের ভি’ডিও ফু’টেজ সংগ্রহ করে অটোরিকশাচালককে

শনাক্ত করে। সকাল ১০টায় বোয়ালিয়া মডের থানার এসআই মো. গোলাম মোস্তফা, এসআই উত্তম কুমার রায় ডিংগাডোবা মোড় থেকে অটোরিকশাচালক আনোয়ার হোসেনকে রিকশাসহ আটক করেন। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আনোয়ার হোসেন টাকাসহ ব্যাগ পাওয়ার কথা অ’স্বীকার করেন। পরবর্তীতে সিসি’টিভির ভি’ডি’ও ফুটেজ দেখানো হলে নির্বা’ক হয়ে যান। সেই সঙ্গে

টাকার ব্যাগ পাওয়ার কথা স্বীকার করেন। পরে রাজপাড়া থানার মহিষবাথান উত্তরপাড়া রেললাইনের পাশে আনোয়ার হোসেনের বাড়ি থেকে টাকা ও ব্যাগ, আইডি কার্ড এবং চাবি উ’দ্ধার করা হয়। আরএমপি কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিক বলেন, টাকার ব্যাগের মধ্যে মোক্তাদির আহমেদের ফোন নম্বর ছিল। আনোয়ার হোসেন তার সঙ্গে যোগাযোগ করেননি।

এতে প্রতীয়মান হয় অটোরিকশাচালকের অ’নৈতিক উদ্দেশ্যে ছিল। অটোরিকশাচালকের বি’রু’দ্ধে আ’ইনগ’ত ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে আরএমপির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। প্রসঙ্গত, নগরীতে অ’পরা’ধ প্রবণতা শূন্যের কোঠায় নামিয়ে আনতে নগরজুড়ে সিসি ক্যামেরা স্থাপন করে রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশ (আরএমপি)। ফলে ধারাবাহিকভাবে বিভিন্ন স্থানের ভি’ডি’ও ফুটে’জ পর্যবেক্ষণ করে দু’র্ঘ’ট’নার কারণ,

হা’রিয়ে যাওয়া মালামাল উ’দ্ধা’র, চু’রি ও ছি’নতা’ইসহ অনেক সমস্যা দ্রুত সমাধান করছে আরএমপি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *