Categories
Uncategorized

ফুটফুটে সন্তানের জন্ম দিলেন পাগলি, বাবা হলো না কেউ!

কিশোরগঞ্জে পরিচয়হী’ন এক পাগলি মা হয়েছেন। কিন্তু সন্তানের বাবার পরিচয় শনা’ক্ত হয়নি। খবর শুনে অনেকেই দেখতে এসেছেন মা ও

বাচ্চা শিশুকে। অ’সহা’য় পাগ’লি আর তার ফুটফুটে শিশু সন্তানের মায়াবী মুখ দেখে সবাই আ’বেগে আ’প্লুত। কিন্তু পাগলির মতো তার সন্তানের বাবার পরিচয় সম্প’র্কেও কারও কিছু জানা নেই। সোমবার সকাল ৭টার দিকে কিশোরগঞ্জের হোসেনপুর উপজেলার রামপুর বাজার

এলাকায় ছেলে সন্তান জন্ম দেন ওই পাগ’লি। খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রাবেয়া পারভেজ ছুটে যান ঘটনাস্থলে।
পরম মমতায় শিশুটিকে কো’লে তুলে নেন তিনি। এসময় এক আবে’গঘন পরিবেশের সৃ’ষ্টি হয়। তিনি পাগলি মা ও শিশুটিকে চিকিৎসার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান।স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে,

১০/১২ দিন আগে উপজেলার রামপুর বাজারে এক পাগলি নারী আসেন। সন্তা’নসম্ভবা ওই পাগলি নারী কারও সাথে বেশি কথা বলেন না। কেউ কিছু খেতে দিলে খান। তবে জোর করে কারো খাবার খান না তিনি। সোমবার সকাল ৭টার দিকে ওই পাগলির প্র’সব বেদ’না দেখা দিলে রামপুর বাজারের পাশের আমির উদ্দিনের মেয়ে জেসমিন ও

সাবিনা তাদের বাড়িতে নিয়ে সন্তান প্রস’ব করার কাজে সহযোগিতা করেন। সেখানে ওই পাগলি নারী ছেলে সন্তানের জন্ম দেন। এ প্রসঙ্গে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রাবেয়া পারভেজ জানান, পাগলির বাচ্চার পি’তৃ পরিচয় সম্প’র্কে এখনো কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি। তিনি বাচ্চাটিকে খাওয়াতেও চাচ্ছেন না। অনেক বু’ঝিয়ে বাচ্চাকে খাওয়ানোর জন্য রাজি করানো হয়েছে।

চিকিৎসা চলছে। তিনি আরও জানান, শিশুটিকে কেউ দ’ত্তক নিতে চাইলে আ’ইন’গতভাবে বিষয়টি দেখা হবে। তাছাড়া সমাজ সেবার মাধ্যমেও তার ব্যাপা’রে কর’ণীয় ভাবা হচ্ছে। এদিকে, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. নাছিরুজ্জামান সেলিম জানান, হাসপাতালের একটি রুমে মা ও শিশুটিকে রাখা হয়েছে।

সার্বক্ষণিক চিকিৎসক ও নার্স তাদের সেবায় নিয়োজিত আছেন। বাচ্চা ও তার মা বর্তমানে’ সুস্থ ও ভালো আছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *