Categories
Uncategorized

পদ্মা সেতুর ১৮ কোটি টাকার মালামাল নিয়ে জাহাজ ডুবি

পদ্মা সেতুর লোহার মালামাল নিয়ে চট্টগ্রামের সন্দ্বীপ চ্যানেলে মঙ্গলবার (১৩ জুলাই) সকাল ১০টার দিকে আরেকটি জাহাজের সঙ্গে ধাক্কা লেগে

এমভি হ্যাং গ্যাং-১ নামের একটি জাহাজ ডুবে গেছে। জাহাজটিতে পদ্মা সেতুর কাজের জন্য এক হাজার ২০০ মেট্রিক টন ওজনের প্রায় ১৮ কোটি টাকার মালামাল রয়েছে। ইতিমধ্যে শুরু হয়েছে উদ্ধার প্রক্রিয়া। এ সময় জাহাজে থাকা ১৩ জন স্টাফকে উদ্ধার করেছেন স্থানীয়

জেলেরা। পদ্মা সেতুর নির্বাহী প্রকৌশলী ও প্রকল্প ব্যবস্থাপক (মূল সেতু) দেওয়ান মো. আব্দুল কাদের এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। পদ্মা সেতু প্রকল্পের নির্বাহী প্রকৌশলী (নদীশাসন) মো. আব্দুল কাদের জানিয়েছেন, ওই জাহাজের মালামাল উদ্ধার করা সম্ভব হবে। উদ্ধারের জন্য জাহাজ ও ক্রেন ডুবে যাওয়া জাহাজের কাছে পাঠানো হয়েছে।

মালামাল ও ডুবে যাওয়া জাহাজের নিরাপত্তার জন্য নৌ-পুলিশ ও কোস্টগার্ড মোতায়েন রয়েছে। বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষের উপপরিচালক মো. সেলিম বলেন, লাইটার জাহাজ এমভি হ্যাং গ্যাং চট্টগ্রাম বন্দর থেকে গ্যাসের পাইপ নিয়ে মাওয়ার দিকে যাচ্ছিল। ভাসানচর থেকে ১০ নটিক্যাল মাইল দক্ষিণে একটি ডুবে যাওয়া জাহাজের সঙ্গে ধাক্কা খায় এটি।

এতে জাহাজটি হেলে পড়ে এবং ডুবে যেতে থাকে। জাহাজের নাবিকরা দ্রুত নিরাপদে অন্য একটি জাহাজে উঠে আসতে সক্ষম হন। মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে তিনটা পর্যন্ত জাহাজটি পুরোপুরি ডুবেনি। এটি উদ্ধারে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। তিনি আরও বলেন, গত শনিবার (১০ এপ্রিল) এমভি ফুলতলা নামে একটি জাহাজ সাগরের ওই পথে ডুবে যায়। এরপর বাংলাদেশ

অভ্যন্তরীণ নৌ পরিবহন কর্তৃপক্ষ সেখানে লাল বয়া স্থাপন করে। এমভি হ্যাং গ্যাং স্টিয়ারিং ফেল করায় নিয়ন্ত্রণ রাখতে পারেনি। ফলে ডুবে থাকা জাহাজ ফুলতলার সঙ্গে ধাক্কা খায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *