Categories
Uncategorized

শিশুর শরীরে হটাৎ করে গজা,চ্ছে পশুর লোম!

সাড়ে তিন বছর বয়স শি,শু কন্যা তাস,ফিয়ার। ফুটফুটে সুন্দর এই শিশু ক,ন্যাটি পোশাক-সাজগোজ পরে ঘুর,লে অন্য পাঁচটি শিশুর মত

স্বাভাবিক লাগে। কিন্তু শিশুটি পো,শাকের ভিতরে এক বিরল য,ন্ত্রণা নিয়ে দিন কাটাচ্ছে। কুরে কুরে খাচ্ছে তাকে ও তার পরিবা,রকে। কারণ শিশু তাস,ফিয়ার জন্মের পর থেকেই শরীরে গজা,চ্ছে পশুর মতো লোম। আক্রান্ত হচ্ছে এক বিরল রোগে। এখন তার শ’রীরের চার ভাগের

তিন ভাগ পশুর লোমের ছেয়ে ফেলেছে। শিশুকন্যা তাসফিয়া জাহান (মনিরা) বাংলা’দেশের চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার নাচোল উপ’জেলার গোডাউন পাড়ার মাসুদুজ্জামান মামুনের ছোট কন্যা। মামুন পেশায় এক’জন রাজমিস্ত্রি। অর্থের অভা’বে তার ফুটফুটে শিশু কন্যার চিকিৎসা করাতে পারেননি তিনি। শিশু তা’সফিয়ার বাবা মামুন জানান, জন্ম

থেকেই তার সারা শরীর লম্বা লম্বা’ পশমে আবৃত। এখন ‘গোটা শরীরজুড়ে বিস্তার ঘটছে, এমনকি’ মুখের মধ্যেও। পিঠের ছোট্ট একটি টি’উমার থেকে এটির উৎপত্তি হতে ‘পারে বলে তাদের ধারণা। তিনি আ’রও জানান, জ,ন্মের ‘মাত্র ছয় দিনের শিশুকন্যা তাফি’য়াকে রাজশাহী মেডি’কেল কলেজ হাসপাতালের ভর্তি করা হয়েছিল। সেখানে চিকিৎস’কদের একটি দল মেডিকেল

বোর্ড বসি’য়ে তাঁরা এটিকে বিরল চর্ম রোগ বলে শ’নাক্ত করেছেন এবং শিশুটির অন্তত ৩/৪ বছর বয়স হলে উন্নত চিকিৎসা’র করার জন্য ঢাকা অথবা ভারতে নিয়ে আসার পরামর্শ দিয়েছিলেন চিকিৎসকেরা। কিন্ত দিন মুজুর রাজমিস্ত্রি জা’নান অভাবের কারনে তাকে আর’ চিকিৎসা করানো সম্ভব হয়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *