Categories
Uncategorized

ওসির ভাব নিয়ে মামলা তদন্ত করেন এসআইয়ের স্বামী, সেই লাভলীকে বদলি

কক্সবাজারের সেই পিবিআই কর্মকর্তা বিতর্কিত এস আই লাভলী কে বদলি করা হয়েছে এর আগে তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ ওঠে এবং তার

দ্বিতীয় স্বামী পুলিশের লোক না হয়েও ওসির মত তদন্ত করে স্ত্রীর মামলা এতে ক্ষুব্ধ প্রশাসনের কর্মকর্তারা এবং এলাকাবাসী। তবে নিজেদের এমন অভিযোগের ব্যাপারে তারা সত্যকে অস্বীকার করেছে যদিও পরবর্তীতে খোঁজখবর নিয়ে সত্যতা পাওয়ায় বদলি করে দেয়া হয়েছে তাকে

অবশেষে দীর্ঘ একযুগের বেশি সময় পর কক্সবাজার থেকে বদলি করা হয়েছে সর্বশেষ পিবিআইয়ে কর্মরত বিতর্কিত এসআই লাভলী ফেরদৌসিকে। পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে স্বামীকে ব্যবহার করে বহু বিতর্কিত কর্মকাণ্ড প্রকাশের পর তাকে কক্সবাজার থেকে ফেনীতে বদলি করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন পিবিআই কক্সবাজারের

এসপি সরোয়ার আলম। পাশাপাশি এসআই লাভলীর বিরুদ্ধে উঠা অভিযোগ তদন্তে একটি কমিটিও গঠন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।
কিন্তু দারোগা স্ত্রীর বদলি ঠেকানো বা চট্টগ্রাম জেলা কিংবা মেট্রোতে নিতে ইতোমধ্যে ঢাকায় গিয়ে জোর তদবির করছেন লাভলীর অপকর্মের মূল হাতিয়ার স্বামী শাহজাহান। সূত্রমতে, কক্সবাজারে বিভিন্ন বিভাগে

দায়িত্ব পালনকালে এসআই লাভলীর বিরুদ্ধে অর্থ লেনদেন, মামলা তদন্তে স্বামীকে সঙ্গে নেওয়া, টাকা আত্মসাৎ, জমি দখল, ই’য়া’বা ব্যবসা নিয়ন্ত্রণ, তদবির বাণিজ্য, স্বামী কর্তৃক তদন্তে প্রভাব বিস্তার করে মিথ্যা তদন্ত রিপোর্ট দেওয়াসহ নানা অভিযোগে সর্বশেষ কর্মস্থল পিবিআই থেকে তাকে বদলি করা হয়েছে। মামলা তদন্তের

রিপোর্ট দেওয়ার বিষয় নিয়ে অর্থ লেনদেনের একটি অডিও সম্প্রতি ফাঁস হওয়ার পর মামলা তদন্তে স্বামীর সম্পৃক্ততা উঠে আসে। এ বিষয়ে গত ২৩ আগস্ট ‘ওসির ভাব নিয়ে’ মামলা তদন্ত করেন এসআইয়ের স্বামী! শিরোনামে যুগান্তর অনলাইনে একটি অনুসন্ধানী প্রতিবেদন প্রকাশ হলে কর্তৃপক্ষ তাকে বদলির সিদ্ধান্ত নেয় বলে জানিয়েছে সংশ্লিষ্ট সূত্র। দীর্ঘ একযুগ

ঘুরে-ফিরে কক্সবাজারে অবস্থান নেওয়া এসআই লাভলীর বদলি হয়েছে জেনে তার কর্মকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত অনেকে সন্তোষ প্রকাশ করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে স্বস্তি প্রকাশ করেছেন। নাম প্রকাশ না করার শর্তে পিবিআইয়ের এক কর্মকর্তা বলেন, লাভলীর বিরুদ্ধে বারবার অভিযোগ আসায় আমরা নিজেরাও বিব্রত। তাকে যতটা মামলা তদন্ত করতে

দেওয়া হয়েছে প্রায় সবটিতে নানা ধরনের অভিযোগ আসায় গেল ছয় মাসে লাভলীকে একটি মামলাও তদন্ত করতে দেওয়া হয়নি। সম্প্রতি অনেক ভুক্তভোগী পুলিশ সুপারের কাছে অভিযোগ দিয়েছেন। এসব অভিযোগ তদন্ত করা হচ্ছে। একই সঙ্গে তার বিরুদ্ধে তদন্ত করার জন্য ঢাকা থেকে একটি টিম কক্সবাজারে আসবে বলেও জানান এই কর্মকর্তা।

বদলির বিষয়ে জানতে এসআই লাভলীকে কল করা হয়। তিনি ফোন রিসিভ না করায় বক্তব্য জানা সম্ভব হয়নি। পিবিআই কক্সবাজারের এসপি সরোয়ার আলম বলেন, এসআই লাভলীকে বদলির পাশাপাশি তার বিরুদ্ধে উঠা সব অভিযোগই তদন্ত করা হচ্ছে। আপাতত এর বাইরে কিছু বলা যাবে না। সম্প্রতি গণমাধ্যম একটি খবর বেশ ভালোভাবে আলোচিত হয় সেটি হচ্ছে

এসআই স্ত্রীর স্বামী মামলা তদন্ত করেন ওসির মত করে পুলিশ কর্মকর্তা না হয়েও নিজের স্ত্রীর ক্ষমতাবলে তিনি বিভিন্ন সময়ে জমি দখলসহ বিভিন্ন ধরনের নেতিবাচক কর্মকান্ড করে আসছেন দীর্ঘদিন থেকেই এবং স্ত্রীর মামলা তদন্ত করতে যান স্বামী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *