Categories
Uncategorized

অভিজিৎ রায়ের খুনি মেজর জিয়া ও আকরামের তথ্য দিলে ৪৪ কোটি টাকা পুরস্কার ঘোষণা করলো যুক্তরাষ্ট্র

ব্লগার ও লেখক অভিজিৎ রায়কে হ;;ত্যার মূল পরিকল্পনাকারী ‘মেজর জিয়া’ নামে পরিচিত সৈয়দ জিয়াউল হক এবং আকরাম হোসেনের

ব্যাপারে তথ্য দিলে ৫৫ লাখ ডলার পুরস্কার দেবে মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তর। ডিবিসি টিভি এ তথ্য জানিয়ে সম্প্রতি প্রকাশিত একটি পোস্টারে বলা হয়, ২০১৫ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি ঢাকায় একটি বইমেলা থেকে বেরিয়ে আসার সময় আল-কায়েদাভিত্তিক স;ন্ত্রা;সীরা মার্কিন নাগরিক অভিজিৎ

রায়কে হ;;ত্যা করে এবং তার স্ত্রী রাফিদা বন্যা আহমেদকে আহত করে। বাংলাদেশের একটি আদালতে ছয়জনকে দোষী সাব্যস্ত করে সাজা দেওয়া হয়েছে উক্ত হা;ম;লায় তাদের ভূমিকার জন্য। ওই আসামিদের মধ্যে দুজন সৈয়দ জিয়াউল হক (ওরফে মেজর জিয়া) এবং আকরাম হোসেন। তাদের অনুপস্থিতিতে বিচারকার্য সম্পন্ন

হয়েছিল এবং তারা এখনো পলাতক রয়েছেন। একাত্তর এতে আরো বলা হয়, উক্ত জিয়াউল হক, হোসেন বা হা;ম;লায় জড়িত অন্য কারো সম্পর্কে আপনার কাছে কোনো তথ্য থাকলে, নিচের নম্বরটি ব্যবহার করে সিগন্যাল, টেলিগ্রাম বা হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে আপনার তথ্য আমাদের নিকট প্রেরণ করুন। সেক্ষেত্রে আপনিও পুরস্কার পেতে পারেন।” দেশ রূপান্তর

এতে একটি ফোন নম্বর দেয়া হয়েছে যা হলো +1-202-702-7843 এবং @RFJ_USA নামে একটি টুইটার হ্যাণ্ডলও দেয়া হয় । পোস্টারের শিরোনামে বলা হয়, ‘রিওয়ার্ডস ফর জাস্টিস ৫ মিলিয়ন ডলার পর্যন্ত পুরস্কার ঘোষণা করেছে/বাংলাদেশে মার্কিন নাগরিকদের উপর স;ন্ত্রা;সী হা;ম;লার তথ্যের জন্য।’ পোস্টারের নিচে বাম

দিকের কোণায় মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের নাম ও প্রতীক, ডিপ্লোম্যাটিক সিকিউরিটি সার্ভিস, ও রিওয়ার্ডস ফর জাস্টিসের নাম রয়েছে। রিওয়ার্ডস ফর জাস্টিস হচ্ছে স;ন্ত্রা;সদ;মনের কাজে ভূমিকার জন্য পুরস্কার দিতে মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের একটি কর্মসূচি। এর উদ্দেশ্য হচ্ছে আন্তর্জাতিক স;ন্ত্রা;সীদের বিচারের আওতায় আনা এবং যুক্তরাষ্ট্রের কোনো ব্যক্তি বা সম্পত্তির

বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক স;ন্ত্রা;সী কর্মকাণ্ড প্রতিহত করা। এ কর্মসূচির অধীনে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এমন কোনো তথ্যের জন্য কাউকে পুরস্কৃত করতে পারেন। যার উদ্দেশ্য আন্তর্জাতিক স;ন্ত্রা;সী কর্মকাণ্ড করা বা করার চেষ্টা, অথবা এর পরিকল্পনা বা সহায়তার সঙ্গে জড়িত কাউকে গ্রেফতার বা দোষী সাব্যস্ত করা, এরকম কোনো ঘটনা

ঘটা ঠেকানো, কোন গুরুত্বপূর্ণ স;ন্ত্রা;সী নেতাকে শনাক্ত বা তার তার অবস্থান চিহ্নিত করা অথবা স;ন্ত্রা;সের জন্য অর্থায়নকে বিঘ্নিত করা। এ পর্যন্ত আরএফ আই ১০০-ও বেশি লোককে মোট ১৫ কোটি ডলারেরও বেশি অর্থ পুরস্কার হিসেবে দিয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *