Categories
Uncategorized

ঘুরতে আসা তরুণ-তরুণীকে অ’সামাজিক কা’র্যক’লাপের অ’ভিযোগে মা’র’ধ’র

ঘুরতে আ’সা দুই তরুণ-তরুণীকে স্থানীয় কয়েকজন যুবক মা’রধর করেছে। সেই মারধরের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্য’মে ভাইরাল হয়েছে।

বুধবার (২৬ জানুয়ারি) দুপুরে রাজশাহীর তানোর উপজেলার তালন্দ-চৌবা’ড়িয়া লবাতলা ব্রি’জ সংলগ্ন রাস্তায় এ ঘটনা ঘটে। ভিডিওতে দেখা যায়, তালন্দ-সমাসপুর গ্রামের মইনুল ও রাজু নামে দুজন মিলে ঘুরতে আসা অপরিচিত এক কিশোর ও এক কিশোরীকে বেধ’ড়ক মারপি’ট

এবং অ’শ্লীল ’ভাষা’য় গালা’গাল করছে। অ’ভিযুক্তরা তরুণ-তরুণীর বিরু’দ্ধে রাস্তা’র পাশে অসামাজিক কার্য’কলাপের অভি’যোগ এনে মা’রধ’র’ করে। এ সময় দুই স্থানীয় গণমাধ্যমকর্মী ওই রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় ঘটনা দেখে বখাটেদের বাধা দেন ও মোবাইল ফোনে ভিডিও ধারণ করেন। ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী আব্দুস সবুর নামে এক

গণমাধ্যমকর্মী জানান, ‘দুপুরে খবর সংগ্রহের কাজে চৌবাড়িয়া বাজারের উদ্দেশে আমরা তিন সংবাদকর্মী যাচ্ছিলাম। এ সময় দেখতে পাই, অপরিচিত এক ছেলে ও এক মেয়েকে মি;থ্যা অ;পবাদ দিয়ে রাস্তার ওপরে দুই বখাটে মারধর করছে। তাৎক্ষণিকভাবে আমরা এর প্রতিবাদ করি এবং মোবাইলে মা;র;ধরে;র ভিডিও ধারণ করি। তবে আমাদের দেখে বখাটেরা

ভুক্তভোগী ওই ছেলেমেয়েকে দ্রুত স্থানীয় পৌর কাউন্সিলর তাসির উদ্দিনের কাছে নিয়ে যায়। ওই বখাটেদের দেখে মনে হচ্ছিল তারা মাদকসেবী।’ নাম প্রকাশ না করার শর্তে তালন্দ ললিত মোহন কলেজে অধ্যয়নরত একজন শিক্ষার্থী জানান, ভুক্তভোগী ওই তরুণ-তরুণীকে সকালে কলেজ চত্বরের আশপাশে ঘুরতে দেখেছেন তাঁরা। হয়তো তাঁরা কলেজে ভর্তি

সংক্রান্ত কাজে এসেছিলেন। কিন্তু পরে মাদকসেবীদের হামলার শিকার হয়েছেন। তালন্দ বাজার ও এর আশপাশের এলাকায় বখাটেদের আনাগোনা বেড়েছে। এদিকে ঘটনার ব্যাপারে জানতে অভিযুক্ত বখাটে মইনুল ও রাজুর সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। অভিযুক্ত মইনুল বলেন, ‘এই বিষয়ে আপনাদের নিউজ করার প্রয়োজন নেই।’ এ বিষয়ে আরেক অভিযুক্ত

রাজু কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি। বিষয়টি নিয়ে তানোর থানার ওসি রাকিবুল হাসান বলেন, ‘খোঁজখবর নেওয়া হচ্ছে। যেই দোষী হোক না কেন, ওই ভুক্তভোগীরা থানায় অভিযোগ করলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *