Categories
Uncategorized

মিশাকে হারিয়ে সভাপতি হয়ে যে ঘোষণা দিলেন ইলিয়াস কাঞ্চন

এবার বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনে সাধারণ সম্পাদক পদে শুরু থেকেই আলোচনায় ছিলেন চিত্রনায়িকা নিপুণ আক্তার। দীর্ঘদিন

ধরে জায়েদ খানের বিরুদ্ধে শিল্পীদের ছিল নানা অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ। গত দুই মেয়াদে সমিতির সাধারণ সম্পাদক হিসেবে তিনি দেড় শতাধিক শিল্পীর ভোটাধিকার কেড়ে নিয়েছেন বলে শোনা যায়। জায়েদের এ কাজে নাকি সায় ছিল সভাপতি মিশা সওদাগরের। এদিকে নির্বাচনের

আগে এফডিসিতে আসা অনেক শিল্পীকে বলতে শোনা যায়, তারা এবার সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে নতুন কাউকে চান। এরপর থেকে অনেকেই ধারণা করেছিলেন, এবার সভাপতি পদে ইলিয়াস কাঞ্চন এবং সাধারণ সম্পাদক পদে নিপুণ আক্তার জয়ী হবেন। সেই ধারণা আধা সত্যি হয়েছে। সভাপতি পদে ইলিয়াস কাঞ্চন জিতলেও জায়েদ

খানের কাছে ১৩ ভোটে হেরে গেছেন নিপুণ। তিনি ভোট পেয়েছেন ১৬৩টি। বিজয়ী প্রার্থী জায়েদ খান পেয়েছেন ১৭৬ ভোট। কিন্তু ভক্ত-সমর্থক থেকে শুরু করে চলচ্চিত্র পাড়ার সবার প্রশংসায় ভাসছেন নিপুণ। অনেকেই বলছেন, হেরেও জিতে গেছেন এই চিত্রনায়িকা। কারণ, তিনি এবারের শিল্পী সমিতির নির্বাচনটা পুরোপুরি জমিয়ে দিয়েছিলেন। ইলিয়াস কাঞ্চনসহ পুরো

প্যানেলকে সাজাতে তার অগ্রণী ভূমিকা নজর কেড়েছে সবার। নিপুণের সাংগঠনিক দক্ষতা প্রশংসা পাচ্ছে শিল্পী সমাজে। আগামীতে তিনি যে নেতৃত্ব দেওয়ার জন্য প্রস্তুত, এবারের নির্বাচন যেন সেই বার্তাই দিয়ে গেল। এদিকে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন করপোরেশনে (বিএফডিসি) অনুষ্ঠেয় এবারের নির্বাচনে ২০২২-২৪ মেয়াদে চলচ্চিত্র

শিল্পী সমিতির সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন ইলিয়াস কাঞ্চন, সেই সঙ্গে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন জায়েদ খান। আজ শনিবার ভোর সাড়ে ৪টা পর্যন্ত ভোট গণনা শেষে নির্বাচনে ফল ঘোষণা করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার পীরজাদা শহীদুল হারুন। ধরে জায়েদ খানের বিরুদ্ধে শিল্পীদের ছিল নানা অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ। গত দুই

মেয়াদে সমিতির সাধারণ সম্পাদক হিসেবে তিনি দেড় আগে এফডিসিতে আসা অনেক শিল্পীকে বলতে শোনা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *