Categories
Uncategorized

কিসের টানে গাভির কাছে ছুটে আসে চিতাবাঘটি!

চিরশত্রু প্রাণীদের মধ্যেও কৃতজ্ঞতার বোধ থেকে সহিংসতা ভুলে নিজেদের মধ্যে মধুর এক ‘মানবিক’ সম্পর্ক তৈরি হতে পারে। এমনই এক

দৃষ্টান্ত দেখা গেল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া কিছু ছবিতে। ছবিতে একটি গরু ও চিতাবাঘের মধ্যকার খাদ্য ও খাদকের চেনা রূপের পরিবর্তে তাদের মধ্যে বেশ ‘বন্ধুত্বপূর্ণ’ সম্পর্কের বন্ধন দেখা যায়। সম্প্রতি ছবিটি ভাইরাল হলেও গুগল ফ্যাক্ট চেক জানায়, ঘটনাটি

২০০২ সালের ভারতের গুজরাটের ভাদোদারা জেলার আন্তলি গ্রামের। ওই গরু ও চিতাবাঘটি নিয়ে অনফরেস্ট.কমে একটি প্রতিবেদনও প্রকাশিত হয়েছিল। প্রতিবেদনে বলা হয়, এক লোক একটি গরু কিনে এনে তার উঠানে বেঁধে রাখে। কিন্তু প্রত্যেকদিন গভীর রাতে কুকুরের ডাকাডাকি শুনতে পায়। তারা ভাবল হয়তো চোরের উৎপাত বেড়েছে। তাই তারা

সেখানে সিসিটিভি ক্যামেরা সেট করে। পরের দিন সিসিটিভি ফুটেজ দেখে তো সবাই হতবাক, গরুটির পাশে একটা চিতা বাঘ ঘুর ঘুর করছে।
পরে তারা যার কাছ থেকে গরুটি কিনেছিল তার কাছে যায় ব্যাপারটা জানতে। আর জানতে পারে যে এই চিতাবাঘটির জন্মের ২০ দিন বয়সে তার মা চিতা বাঘিনী মারা যায়। তারপরে এই গরুটির দুগ্ধপান করে সে বাঁচে।

তাই সে তার ত্রাণ কর্ত্রী দুধ মাকে ভুলে যায়নি, প্রত্যেক রাত্রে দেখা করতে আসে। মাকে জড়িয়ে ধরে বসে থাকে। মাও আদর করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *