Categories
Uncategorized

সার্চ কমিটির সদস্য ছহুল হোসাইন আওয়ামী লীগের প্রার্থী হতে চেয়েছিলেন

সাবেক নির্বাচন কমিশনার ছহুল হোসাইন। জরুরি জমানায় গঠিত নির্বাচন কমিশনে রাখেন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা। দীর্ঘ দিন জেলা জজ, আইন মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব,

অতিরিক্ত সচিব এবং সচিব হিসাবেও দায়িত্ব পালন করেন। এবার আবারও খবরে এসেছেন তিনি। নতুন নির্বাচন কমিশন গঠনের জন্য গঠিত সার্চ কমিটির সদস্য হয়েছেন ছহুল হোসাইন। এ পরিস্থিতিতে পুরনো একটি খবরও আলোচনায় এসেছে। গত সংসদ নির্বাচনে সিলেট-১ আসনে

আওয়ামী লীগের প্রার্থী হতে চেয়েছিলেন ছহুল হোসাইন। মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করে তা জমাও দিয়েছিলেন। ২০১৮ সালের নভেম্বরে সমকাল, বিডিনিউজসহ একাধিক সংবাদ মাধ্যমে তাকে নিয়ে খবর প্রকাশতি হয়েছিল। সেসময় সমকালে প্রকাশিত এক খবরে বলা হয়, মর্যাদাপূর্ণ সিলেট-১ (সদর-নগর) আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হতে

মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন সাবেক নির্বাচন কমিশনার ছহুল হোসাইন। গতকাল রোববার ঢাকায় দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে তার পক্ষে তার এক আত্মীয় এ মনোনয়নপত্র জমা দেন। এ খবর নিশ্চিত করে ছহুল হোসাইন বলেন, সিলেট আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের অনুরোধে দলীয় মনোনয়নপত্র কিনে তা পূরণ করে জমা দিয়েছি। এখন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওপর

নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতার বিষয়টি নির্ভর করছে। সেসময় ছহুল হোসাইন সমকালকে আরও বলেন, দশ বছর ধরে আওয়ামী লীগ দেশের ব্যাপক উন্নয়ন করেছে। উন্নয়নের এ ধারা অব্যাহত রাখতে জনগণ ফের আওয়ামী লীগকে নির্বাচিত করবে বলে বিশ্বাস করি। তিনি বলেন, নির্বাচন করলে আশা করি বিজয়ী হতে পারব। তখন দেশের জন্য কাজ

করার সুযোগ বাড়বে। ছহুল হোসাইনের ভাতিজা সিলেট সিটি করপোরেশনের সাবেক ওয়ার্ড কাউন্সিলর দিলওয়ার হোসাইন সজীব বলেন, সিলেটের মানুষের উন্নয়নে কাজ করতে চান ছহুল হোসাইন। এ ভাবনা থেকে তিনি ভোটের মাধ্যমে রাজনীতিতে নামতে চান। বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা মনোনয়ন দিলে তিনি এ আসনটি উপহার দিতে পারবেন। যদিও ছহুল হোসাইন

এখন নিজেকে নিরপেক্ষ দাবি করেছেন। ইংরেজি দৈনিক ডেইলি স্টারকে শনিবার তিনি বলেছেন, আমি আওয়ামী লীগের থেকে নির্বোচন করতে চেয়েছিলাম বলে আওয়ামী লীগ হয়ে গেছি বিষয়টি মোটেই তেমন নয়। যখন নির্বাচন করতে চেয়েছিলাম, তখন বিষয়টা ঠিক ছিল। এখন আর আমার সঙ্গে আওয়ামী লীগের কোনো সম্পর্ক নেই। পর্যবেক্ষকরা অবশ্য

তার এই বক্তব্য নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। তারা বলেছেন, দল না করলে তো কেউ দলীয় মনোনয়ন চায় না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *