Categories
Uncategorized

চূড়ান্ত ঘোষণা আসার আগেই মুসলিমদের উদ্দেশ্যে যে বার্তা দিলেন বাইডেন

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্রেট প্রার্থী সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এখন বিজয়ের দ্বারপ্রান্তে বলে মনে

করছেন অনেকেই। ইতিমধ্যে তার সংগ্রহ ২৬৪ টি ইলেকটোরাল ভোট। আর ৬ টি ইলেকটোরাল ভোট পেলেই তিনি যুক্তরাষ্ট্রের ৪৬
তম প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হবেন। সারা বিশ্বের মানুষের কাছে জো বাইডেন নামটি এখন সম্ভবত সবচেয়ে বেশি আলোচিত।

এমন সময়ে তার নিজ মুখে বলা একটি হাদীস সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে পড়েছে। যেখানে তাকে যুক্তরাষ্ট্রের
মুসলিম সম্প্রদায়ের উদ্দেশ্যে বলতে শোনা যাচ্ছেঃ “হযরত মোহাম্মদের একটি হাদীসে নির্দেশ করা হয়েছেঃ তোমাদের কেউ কোনো
অন্যায় সংঘটিত হতে দেখলে সে যেন তা নিজ হাতে প্রতিরোধ করে।

তা সম্ভব না হলে যেন মুখে প্রতিবাদ করে। যদি তাও সম্ভব না হয় তবে যেন মন থেকে ঘৃণা করে।” এরপর বাইডেন বলেন, আপনারা অনেকেই এই দীক্ষা নিয়ে জীবনধারন করেন, এই বিশ্বাস আর নীতি নিয়ে যা যুক্তরাষ্ট্রের নীতির সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ। এমন একটি প্রশাসন এবং এমন একজন প্রেসিডেন্ট আপনাদের প্রাপ্য

যারা এসব উদ্যোগে আপনাদের সাথে কাজ করবে এবং আপনাদের সমর্থন করবে। আমার প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হবার সৌভাগ্য হলে সবাই একসাথে মিলে ভুলকে ঠিক করতে, পৃথিবীকে আরো সুন্দর করতে; আমাদের হাত, আমাদের হৃদয় এবং

আমাদের আশা দিয়ে কাজ করবো।” সবার শেষে তিনি ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, “আপনাদের উপর শান্তি বর্ষিত হোক।”

Categories
Uncategorized

৩০০ টাকা নিয়ে শহরে এসে কোটি টাকার মালিক!

পরিবারের অশান্তি না সহ্য করতে পেরে মাত্র ১৫ বছর বয়সে বাড়ি ছেড়েছিলেন তিনি। হাতে ছিল মাত্র ৩০০ টাকা। এক জোড়া জুতা আর দুটি

জামা নিয়ে বের হয়ে তিনি আজ কোটি টাকার মালিক। তার নাম চিনু কালা। ১৯৮১ সালে জন্ম নিয়ে গড়পড়তা টানাপোড়েনের জীবনকে তিনি রাজকীয় করে তুলেছেন। তিনি এখন রুবানস অ্যাকসেসরিজের মালিক। ১৯৮১ সালে ১০ অক্টোবর রাজস্থানে জন্ম তার। প্রথাগত শিক্ষার সুযোগ

তিনি পাননি। বাস্তব অভিজ্ঞতাই তার শেখার মূল প্রেরণা। ১৫ বছরের সেই অসহায় মেয়ে থেকে চিনু কালা হয়ে ওঠার জার্নিটা সহজ ছিল না তার। প্রথম দু’দিন খুব ভয়ে কেটেছে। রাস্তায় রাস্তায় ঘুরে দিন কাটিয়েছিলেন। তারপর একটা আশ্রয়ের সন্ধান পান। প্রতি রাতে ২০ টাকার বিনিময়ে একটি ডর্মিটরিতে তিনি থাকার ব্যবস্থা করে ফেলেন। কয়েক দিনের মধ্যে একটা কাজও জুটিয়ে নিলেন। দরজার দরজায় ঘুরে ছুরির

সেট, কোস্টার ইত্যাদি বিক্রি করার কাজ। সারাদিন ঘুরে কয়েকটাই মাত্র বিক্রি করতে পারতেন। কোনওদিন ২০ টাকা, কোনওদিন ৬০ টাকা উপার্জন হত তার। বেশিরভাগ বাড়িতেই তাঁর মুখের উপর দরজা বন্ধ করে দেওয়া হত। এ সব নিয়ে প্রথম প্রথম খুব ভেঙেও পড়তেন তিনি। তবে হাল ছাড়েননি। মাত্র এক বছরের মধ্যে তিনিই আবার এই

পেশায় এতটাই দক্ষ হয়ে ওঠেন যে, তাঁকে ওই সেলস কোম্পানি সুপারভাইজারের পদে উত্তীর্ণ করে। নানা রকমের কাজ করেছেন চিনু। রেস্তরাঁয় ওয়েট্রেস-এর কাজও করেছেন। এমন দিনও গিয়েছে তার যখন সারাদিন সেলস-এর কাজ করার পর সন্ধ্যা ৬টা থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত রেস্তোরায় খাবার পরিবেশন করে উপার্জন করেছেন। উপার্জন করেছেন মডেলিং থেকেও।

২০০৪ সালে বেঙ্গালুরুর বাসিন্দা অমিত কালার সঙ্গে বিয়ে হয়। তাদের একটি মেয়ে রয়েছে। তার জীবনে টার্নিং পয়েন্ট আসে ২০০৮ সালে। বন্ধুদের কথা মেনে মিসেস ইন্ডিয়া প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করেন চিনু। প্রতিযোগিতার ফাইনালেও পৌঁছন। কিন্তু ইংরাজিতে ঠিক মতো উত্তর দিতে না পারায় প্রতিযোগিতা থেকে ছিটকে গিয়েছিলেন। তারপরই তার মডেলিংয়ে আসা। মডেলিংয়ে আসার পরই ফ্যাশন জুয়েলারিতে আগ্রহ

জন্মায় চিনুর। তত দিনে আর্থিক ভাবে অনেকটা সাবলীল হয়ে উঠেছিলেন। ফলে এ বার চিনু নিজের ব্যবসা শুরু করার পরিকল্পনা করে ফেলেন। ২০১৪ সালে শুরু করে দেন অনলাইন জুয়েলারি ব্যবসা। নাম দেন রুবানস অ্যাকসেসরিজ। অনলাইনের পাশাপাশি বেঙ্গালুরুর ফোরাম মলেও রুবান অ্যাকসেসরিজের

আউটলেট রয়েছে। ৩০০ টাকায় জীবন শুরু করা চিনুর কোম্পানির টার্নওভার এখন সাড়ে ৭ কোটি টাকা।

Categories
Uncategorized

ব্রেকিং নিউজ : ৪৬তম মার্কিন প্রেসিডেন্ট হলেন জো বাইডেন- ‘ডিসিশন ডেস্ক’

জো বাইডেনকে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে বিজয়ী ঘোষণা করেছে মার্কিন তথ্য ও ডেটা বিশ্লেষণকারী প্রতিষ্ঠান ‘ডিসিশন ডেস্ক’।

নির্বাচনী ফলাফল সংগ্রহ, বিশ্লেষণ ও পূর্বাভাসের ক্ষেত্রে এই প্রতিষ্ঠানের সুনাম রয়েছে। ‘ডিসিশন ডেস্ক’ সদরদপ্তর শুক্রবার তথ্য
বিশ্লেষণের ভিত্তিত বলেছে, জো বাইডেনই হচ্ছেন আমেরিকার ৪৬তম প্রেসিডেন্ট। তারা পূর্বাভাসে

বলছে, ‘২০ ইলেকটোরাল ভোটের গুরুত্বপূর্ণ রাজ্য পেনসিলভানিয়াতে বাইডেনের জয় নিশ্চিত। এর ফলে এটা নিশ্চিত করে বলা যায়
ওই অঙ্গরাজ্যের ইলেকটোরাল ভোটসহ মোট ২৭৩টি ইলেক্টোরাল ভোট পাবেন ডেমোক্র্যাট প্রার্থী।’প্রতিষ্ঠানটি বলেছে, জো বাইডেন

আমেরিকার পরবর্তী প্রেসিডেন্ট। তার ন্যূনতম ইলেকটোরাল কলেজ ভোট ২৭৩। তাদের বিশ্লেষণ অনুযায়ী বর্তমানে ২৫৩ টি ইলেকটোরাল
ভোট পেয়েছেন বাইডেন। এর সঙ্গে নিশ্চিতভাবে যুক্ত হয়েছে পেনসিলভানিয়ার ২০টি ইলেকটোরাল কলেজ। জর্জিয়ার মত
পেনসিলভেইনিয়াতেও বাইডেন ট্রাম্পকে টপকে যাওয়ার পর এ

ঘোষণা দিল ডিসিশন ডেস্ক হেডকোয়ার্টার্স। পেনসিলভানিয়ার পাশাপাশি আরও চারটি গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গরাজ্যে এখনও ভোট গণনা চলছে।
এর মধ্যে নর্থ ক্যারোলাইনায় ১৫টি, অ্যারিজোনায় ১১টি এবং নেভাদায় ৬টি ইলেকটোরাল কলেজ ভোট রয়েছে। অবশ্য নর্থ ক্যারোলাইনায় পিছিয়ে আছেন বাইডেন। তবে পেনসিলভানিয়ায় জয়

পেলে প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হতে বাইডেনকে তার আর কোনো ফলের জন্য অপেক্ষা করতে হবে না।

Categories
Uncategorized

দুর্ঘ’টনাকবলিত ট্রেন থেকে তেল নিয়ে পালাচ্ছে এলাকাবাসী

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলের সাতগাঁও এলাকায় একটি তেলবাহী ট্রেনের সাতটি বগি লাইনচ্যুত হয়েছে। এতে সিলেটের সঙ্গে

সারাদেশের রেল যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে। শনিবার দুপুর ১২টার দিকে ট্রেনটি সিলেট যাওয়ার পথে শ্রীমঙ্গলের সাতগাঁও এলাকায় লাইনচ্যুত
হয়। এদিকে তেলবাহী বগি লাইনচ্যুত হওয়ায় তেল ছড়িয়ে পড়েছে রেললাইনে ও আশপাশে।

এই তেল নিতে হিড়িক পড়েছে সাধারণ মানুষের। যে যেভাবে পারছেন তেল নিয়ে যাচ্ছেন। কেউ বালতিতে করে কেউ গ্লাসে-মগে
আবার কেউ ডেস্কি নিয়ে তেল সংগ্রহ করছেন। রীতিমত উৎসবের আমেজে চলছে তেল সংগ্রহ।

স্থানীয় বাসিন্দা আব্দুল আলিম বলেন, আমি তিন লিটারের মত সংগ্রহ করেছি, এটা ডিজেল। কাজে না লাগলে বিক্রি করে দেব। শ্রীমঙ্গল রেলস্টেশনের সহকারী স্টেশনমাস্টার শাখওয়াত হোসেন জানান, সাতটি বগি লাইনচ্যুত হওয়ার পর সাধারণ

মানুষ তেল সংগ্রহ করছে। বগিগুলোতে এক লাখ ৬০ হাজার লিটার অকটেন, ডিজেল ও কেরোসিন ছিল।

Categories
Uncategorized

সরকার গঠনের প্রস্তুতি শুরু করেছেন বাইডেন

সরকার গঠনের প্রস্তুতি শুরু করেছেন জো বাইডেন। এরই মধ্যে ট্রানজিশন ওয়েবসাইট চালু করে তার দল ডেমোক্র্যাটিক পার্টি।

যুক্তরাষ্ট্রে নতুন প্রেসিডেন্টের কাছে শান্তিপূর্ণ ক্ষমতা হস্তান্তরে দরকার হয় প্রেসিডেন্সিয়াল ট্রানজিশন। এতে একটি বিশেষ টিম হোয়াইট হাউজের কর্মকর্তাদের সঙ্গে ক্ষমতা হস্তান্তরের কার্যক্রম পরিচালনা করে থাকে। আর সে প্রক্রিয়ার সবশেষ তথ্য দেয়া হবে এই ওয়েবসাইটে।

এখানে নিজেদের উদ্যোগ-পরিকল্পনাও জানাচ্ছেন বাইডেন ও তার রানিংমেট কমলা হ্যারিস। এরই মধ্যে করোনা মহা’মারি থেকে শুরু করে অর্থনৈতিক ম’ন্দা, জলবায়ু পরিবর্তন ও ব’র্ণবা’দ থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে মুক্ত করার অঙ্গীকার করেছেন তারা।

আরো পড়ুন…
বাংলাদেশ সীমান্ত সিল করে দেয়া হবেঃ একটি মশা-মাছিও ঢুকতে পারবে না

বাংলার নির্বাচনে বিজেপির জন্য দুশো আসনের লক্ষ্যমাত্রা স্থির করে অমিত শাহ জানালেন, ভু’য়া ভোটার নিয়ন্ত্রণে প্রয়োজনে

বাংলাদেশ সীমান্ত সিল করে দেয়া হবে। শুক্রবার নিউ টাউনে ওয়েস্টিন হোটেলে মালদহ, নদীয়া ও দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার বিএসএফ
কর্তাদের সঙ্গে একটি বৈঠকে বসেছিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। বিজেপির রাজ্য নেতৃত্বের আ’শংকা

উদ্ধৃত করে তিনি বলেন, বাংলাদেশ থেকে প্রচুর ভু’য়া ভোটার আনা হয়। এবার সীমান্তে নজরদারি চালাতে হবে যাতে বাংলাদেশি অনুপ্রবেশকারীরা বাংলায় ভোট না দিতে পারে। তিনি এমন ন’জরদারি চালানোর কথা বলেন যাতে একটি মশা কিংবা মাছিও সীমান্ত
টপকে না আসতে পারে।

এসময় তিনি প্রয়োজনে সীমান্ত সিল করার কথা বলেন। শুক্রবার সকালে অমিত শাহ দক্ষিণেশ্বর মন্দিরে পূজা দেন। এরপর সংগীত
বিশারদ পন্ডিত অজয় চক্রবর্তীর গল্ফ ক্লাব রোডের বাড়িতে যান। পূর্বাঞ্চলীয় সাংস্কৃতিক কেন্দ্রে মুখোমুখি হন কলকাতা ও নবদ্বীপ এর কার্যকর্তাদের সঙ্গে। এরই ফাঁকে দেখা করেন বিজেপি কর্তা রাহুল সিনহার সঙ্গে।

বৃহস্পতিবার রাতে তাঁর সঙ্গে দেখা করেন শোভন চট্টোপাধ্যায় ও বৈশাখী বন্দোপাধ্যায়। সবাইকেই তিনি বলেন, বাংলাকে মমতা বন্দোপাধ্যায়
এর কুশাসন থেকে মুক্ত করতে হবে। অমিত শাহ জানান, দক্ষিণেশ্বরে ভবতারিনীর কাছে তিনি এই মর্মে পূজাও দিয়েছেন।

বাংলার নির্বাচনে বিজেপির জন্য দুশো আসনের লক্ষ্যমাত্রা স্থির করে অমিত শাহ জানালেন, ভু’য়া ভোটার নিয়ন্ত্রণে প্রয়োজনে

Categories
Uncategorized

সংসদ লেকে ভাসানো নৌকা দু’টিতে ব্যয় ৪০ লাখ

গ্রামবাংলার অপরুপ সৌন্দর্য্যরে সঙ্গে মিল রেখে তৈরি করা হয়েছিলো দৃষ্টিনন্দন জাতীয় সংসদ ভবন। মার্কিন স্থপতি লুই আইকানের অনন্য সৃষ্টি

ওই ভবনের চারপাশে মনোরম লেক। সংসদের বিশেষ অধিবেশনকে সামনে রেখে পানি থৈ থৈ সেই লেকেই ভাসানো হয়েছে গ্রামের চিরচেনা ঐতিহ্যের গুরুত্বপূর্ণ অনুসঙ্গ নৌকা। ওই নৌকা দু’টি তৈরিতে ৪০ লাখ টাকা ব্যয় করেছে বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশন।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী (মুজিববর্ষ-২০২০) উপলক্ষে গতকাল বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদ ভবন লেকে মুজিববর্ষের লোগো খচিত নৌকা ভাসানো কর্মসূচীর উদ্বোধন করেন জাতীয় সংসদের চিফ হুইপ নূর- ই-আলম চৌধুরী। সংসদ সচিব জাফর আহমেদ খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন

প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী, জাতীয় সংসদের হুইপ মো. ইকবালুর রহিম ও সামশুক হক চৌধুরী, বেসামরিক বিমা পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এবং সংসদ সদস্য নাহিদ ইজাহার খান ও সৈয়দা রুবিনা আক্তার। অনুষ্ঠানে চিফ হুইপ নূর-এ আলম চৌধুরী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান নৌকাকে প্রতীক হিসেবে বেছে

নিয়েছিলেন কারণ ঐ সময় দেশের জনগোষ্ঠীর একটি বড় অংশ জীবিকা অর্জনে নৌকার উপর নির্ভরশীল ছিলেন নৌকা ও জয় বাংলা বাঙালির জন্য একটি শক্তি। নৌকার মধ্যেই স্বাধীনতা ও স্বাধীকারের অনুপ্রেরণা জড়িয়ে আছে। সংসদ লেকে নৌকা ভাসানোর মাধ্যমে সংসদের সৌন্দর্য্য আরো বাড়লো। যা দেশি-বিদেশি পর্যটকদের সংসদ ভবন পরিদর্শনে আকৃষ্ট করবে।প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী বলেন, বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে ১৯৭০ সালের নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের মাধ্যমে বিজয় নিশ্চিত হয়। বর্তমানে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা নেতৃত্বে নৌকা প্রতীক নিয়ে আওয়ামীলীগ বিজয়ী

হয়েছে। নৌকা প্রতীকের মাধ্যমে দেশের আবহমান ঐতিহ্যকে তুলে ধরা হয়েছে। এর মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা সংস্কৃতি ও সভ্যতাকে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। অনুষ্ঠানে জানানো হয়, নদী আর নৌকা ছাড়া দেশের ছবি কল্পনা করা যায় না। তাই জাতির জনক শেখ মুজিবুর রহমান নির্বাচনী প্রতীক হিসেবে নৌকাকে বেছে নিয়েছিলেন। ১৯৭০ সালের যে নির্বাচন বাঙালিকে স্বাধীনতার একদফা দাবিতে ঐক্যবদ্ধ করেছিল, সে

নির্বাচনে নৌকা প্রতীকেই পড়েছিল সবচেয়ে বেশি ভোট। এসব দিক বিবেচনা করেই মুজিববর্ষে নৌকা তৈরি ও সংসদ ভবনের লেকে ভাসানো হয়েছে। সংশ্লিষ্টরা জানান, নৌকা দু’টি আসলেই বিশেষ বৈশিষ্ট্যমণ্ডিত। কারুকীর্তি দেখে চোখ জুড়িয়ে যাবে যে কারও। অনেকদিন ধরে এই নৌকা তৈরি ও সাজানোর কাজ চলে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নকশা অনুমোদনের পর নৌকার মূল কাঠামো গড়া হয়েছে গয়না নৌকার আদলে। লম্বায় ২৭ ফুট। পাঁচ ফুট চওড়া। নৌকা দুটি তৈরিতে খরচ হয়েছে ৪০ লাখ টাকা। পুরো কাজের তত্ত্বাবধানে ছিলেন শিল্পী আনিসুজ্জামান। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের অধ্যাপক নৌকার প্রাথমিক ডিজাইন করেন।

সরেজমিনে দেখা যায়, সংসদ লেকে ভাসানো নৌকা দুটির ছৈ বা ছাউনিকে সবচেয়ে বেশি আকর্ষণীয় করা হয়েছে। ছাউনি হলেও, একে অনেকটা ক্যানভাসের মতো করে সাজিয়ে নিয়েছেন শিল্পীরা। সেখানে আবহমান বাংলার নানা ছবি এঁকেছেন। চমৎকার ফোক ফর্ম ব্যবহার করা হয়েছে। আলাদা আলাদা বর্গাকার ফ্রেমে দৃশ্যমান করেছেন বাঙালির ঐতিহ্যবাহী শখের হাঁড়ি, কাঠের চাকাওয়ালা ঘোড়া, কাগুজে বাঘ, কুঁড়ে ঘর, দোয়েল শাপলা- আরও কত কী! ছৈয়ের শেষ সীমানায় ব্যবহার করা হয়েছে জামদানির ফর্ম। নৌকার পাটাতন ও বৈঠাতেও কারুকাজ করা

হয়েছে। যা দেখলে বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ সম্পর্কে সুস্পষ্ট ধারণা পাওয়া যাবে বলে আশা করা হচ্ছে। সূত্র: কালের কণ্ঠ।

Categories
Uncategorized

বিয়ে করতে করতে আমি ক্লান্ত, ছেলেদের আর বিশ্বাস করি না: শ্রাবন্তী

অনেক প্রত্যাশা নিয়ে মানুষ ঘর বাঁধে। সেই ঘরে থাকবে প্রে’ম, বিশ্বা’স, আন্তরিক বোঝাপড়া, আমৃ’ত্যু পাশাপাশি থেকে যাওয়ার টান,

এমনটাই চান সব দম্পতি। তবুও সেই প্রত্যাশা-চাওয়ার পালে মন্দ বাতাস লাগে। র’ক্তাক্ত হয় বিশ্বা’সের মানচিত্র। ভেঙে যায় অনেক আবেগে বাঁ’ধা ঘর। চারপাশের মানুষেরা সেই ঘর ভাঙার বেদনা দেখে না। অনুভব করে না যে দুটি হৃদয় ভালোবেসে একে অ’পরকে আঁকড়ে ধরেছিল

সে দুটি হৃদয় বিচ্ছেদে কতোটা ক্ষত-বিক্ষত হয়! সেই অনুভূতিকে পাশ কাটিয়ে সবাই মেতে ওঠে ঘর ভাঙার সমালোচনায়।যদি সেই ঘর হয় কোনো তারকার তাহলে তো বিতর্কের শেষ নেই। এই যেমন কলকাতার অ’ভিনেত্রী শ্রাবন্তীর সংসার ভেঙে যাচ্ছে বলে গুঞ্জন ছড়িয়েছে। ভা’রতীয় গণমাধ্যমগুলো সেই গুঞ্জন উসকে দিয়েছে। কোথাও কারণ পাওয়া যায়নি কেন তৃতীয়বারের মতো পাতা সংসার গুটিয়ে নিতে চলেছেন

শ্রাবন্তী!নব দম্পতি গত বছর দুর্গাপূজায় একসঙ্গে চুটিয়ে আনন্দ করেছেন। ষষ্ঠী থেকে দশমীর সিঁদুর খেলা- সোশ্যাল মিডিয়া মাতিয়ে রেখেছিলেন একগুচ্ছ রোমান্টিক ছবিতে। কিন্তু সদ্য শেষ হওয়া এবারের পূজায় সব নীরব। বরং শ্রাবন্তী-রোশনের ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলে গিয়ে দেখা গেল একে অ’পরকে ইনস্টাগ্রামে আন-ফলো করে দিয়েছেন দুজনই।

শুধু বিয়ের নয়, দুজনের একসঙ্গে থাকা যাবতীয় ছবি ডিটিল হয়ে গেছে প্রোফাইল থেকে। শ্রাবন্তীর ইনস্টার দেয়ালে শুধু দুটি গ্রুপ ছবিতেই রয়েছেন রোশন। শুধু রোশন-শ্রাবন্তী নন, নায়িকার প্রথম পক্ষের ছে’লে অ’ভিমন্যু চট্টোপাধ্যায়ের ইনস্টা প্রোফাইলেও তিনজনের বেশকিছু ছবি ছিল কিন্তু সবই গায়েব! কিষাণ বিরাজের সঙ্গে বিয়ে ভাঙার পরও তো এমনটাই হয়েছিল! সেই পুরোনো স্মৃ’তি মনে করেই গুঞ্জন দেখা দিয়েছে শ্রাবন্তীর ঘর ভাঙার।

সেই গুঞ্জনে ঘি ঢেলেছেন শ্রাবন্তীর স্বামী রোশন। ভা’রতের নিউজ ১৮ বাংলাকে দেয়া মন্তব্যে রোশন জানিয়েছেন, ‘দশমীর প্রায় ১০ দিন আগে থেকেই আমি আর শ্রাবন্তী আলাদা থাকছি।’ কেন আলাদা থাকছেন সে বিষয়ে স্পষ্ট করে কিছুই বলেননি তিনি।সেই কারণটাই এখন খুঁজছেন সবাই। কলকাতার সিনেমাপাড়া তো বটেই, বাংলাদেশেও শ্রাবন্তী ভক্তদের প্রশ্ন- কেন আবারও বিচ্ছেদের পথে

হাঁটছেন তিনি। স্বামী রোশন সিংয়ের সঙ্গে কী’ ঝামেলা চলছে যে দানে দানে তিনদানের সংসারটাও রক্ষা হলো শ্রাবন্তীর!

Categories
Uncategorized

আমি প্রেসিডেন্ট হলে মার্কিন প্রশাসনের প্রতিটি স্তরের অংশীদার হবেন মুসলমানরা : জো বাইডেন

জো বাইডেন ইসলামিক সোসাইটি অব নর্থ আমেরিকার (আইএসএনএ) ৫৭তম বার্ষিক সম্মেলনে প্রথমবারের মতো যুক্তরাষ্ট্রের

প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হিসেবে বক্তব্য দিয়ে ইতিহাস রচনা করেছেন। ‘মুসলিম আমেরিকান ভয়েসেস ম্যাটার’ উল্লেখ করে জো বাইডেন তিনবার বলেন ‘আমি প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হলে মুসলিমদের পাশে থাকবো। আইএসএনএ-র অফিসিয়াল টুইটার একাউন্ট থেকে এক টুইটে বাইডেনের

বক্তব্যসহ ভি’ডিও পো’স্ট করে এ তথ্য জানানো হয়েছে। বাইডেন জানান, প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হলে প্রথম দিনই সুনির্দিষ্ট মুসলিম দেশগুলোর উপর অভিবাসনে আরোপিত নিষে’ধাজ্ঞা প্রত্যাহার করবেন। মুসলিম আমেরিকানরা তার প্রশাসনের ‘প্রতিটি স্তরের’ অংশীদার হবেন। এর আগেও বাইডেন ভারতকে কাশ্মীরিদের গণতান্ত্রিক অধিকার ফিরিয়ে দিতে বলেছিলেন।

বাইডেন মুসলিম সম্প্রদায় সম্পর্কে ‘ইসলামোফোবিয়া’ ও মুসলিমদের ‘শিকার’ হওয়ার বিষয়েও কথা বলেছেন।

আরো পড়ুন…
প্রেমের প্রস্তাবে রা’জি না হওয়ায় ছাত্রের মুখে এ’সি’ড দিল ছাত্রী

জামালপুর পৌরসভার রশিদপুর গ্রামে প্রেমের প্র’স্তাবে রাজি না হওয়ায় এক কলেজছাত্রকে এ’সি’ড মে’রে’ছে এক ছাত্রী। আ’হ’ত ওই

ছাত্রের নাম মাহমুদুল হাসান মারুফ। এসিডে তার মুখম’ণ্ডল ও কাঁ’ধ ঝ’ল’সে গেছে। তাকে শুক্রবার (১৬ মার্চ) ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে এ ঘ’টনা ঘ’টে। পুলিশ ওই ছাত্রী ভাবনা আক্তার রিয়া ও তার মা হাসি বেগম

সুজেদাকে আট’ক করেছে। পুলিশ ও পরিবার সূত্রে জানা যায়, রশিদপুর গ্রামের আ’হ’ত মাহমুদুল হাসান মারুফ জামালপুর সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজে ইলেকট্রনিকস টেকনোলজির প্রথম বর্ষের ছাত্র। একই গ্রামের বাসিন্দা ও ঝাউগড়া বঙ্গবন্ধু কলেজের এইচএসসি প্রথম বর্ষের ছাত্রী ভাবনা আক্তার রিয়া মাহমুদুল হাসান মারুফকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল।

কিন্তু মারুফ তাতে সা’ড়া দেয়নি। এর মধ্যে বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে মারুফ তার বন্ধু সাইফুলকে নিয়ে রিয়ার বাড়ির সামনে দিয়ে যাচ্ছিল। এ সময় রিয়া মারুফকে বাড়ির ভেতরে বৈ’দ্যুতিক লাইনের ত্রু’টি ঠিক করে দিতে বলে। মারুফ দিনের বেলা এসে ঠিক করে দেবে বলে চলে যাচ্ছিল। এ সময় আ’ক’স্মি’ক মারুফের মুখে এ’সি’ড ছু’ড়ে মা’রে রিয়া। এরপর মারুফ চিৎ’কার দিয়ে দৌড়ে রশিদপুর বাজারে

যায়। স্থানীয়রা তাকে জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। এ’সি’ডে মারুফের দুই চোখ ছাড়া মুখমণ্ডলের বেশির ভাগ ঝ’ল’সে গে’ছে। তার ডান কাঁ’ধেও সামান্য দ’গ্ধ হয়েছে। গতকাল তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে পাঠানো হয়। জামালপুর সদর থা’না পুলিশ গতকাল বৃহস্পতিবার গ’ভীর রা’তে রিয়া ও তার

মা হাসি বেগম সুজেদাকে রশিদপুরের বাড়ি থেকে আ’টক করেছে। এ ঘট’নায় মারুফের বাবা দুদু মিয়া বা’দী হয়ে জামালপুর সদর থা’নায় মা’মলা দায়ের করেছেন। এ’সি’ডদ’গ্ধ মারুফ গতকাল বলে, ‘রিয়া আমাকে ঘরে যেতে বললে আমি যাইনি। এ সময় রিয়া দরজা থেকে আমার মুখের দিকে কী যেন ছু’ড়ে মা’ড়ে। আমি সাথে সাথে চিৎ’কা’র দিয়ে দৌ’ড় দিই।

রিয়ার সাথে আমার কোনো প্রেমের সম্পর্ক নেই। রিয়াই আমাকে মাঝেমধ্যে ফোন করে প্রেমের প্র’স্তাব দিত। আমি রাজি হইনি। ঘটনার সময় ওই বাড়ির একটি কক্ষে কিছু লোকজনের কথা শুনেছি। ’ তবে কলেজছাত্রী রিয়া বলে, ‘আমি মারুফকে চিনি না। ওর সাথে আমার কোনো সম্পর্কও নেই। যে সময়ের কথা বলছে আমি আর আমার মা তখন বাড়িতে ঘুমিয়ে ছিলাম। আমি তাকে এ’সি’ড মা’রি’নি। তারা মি’থ্যা অ’ভিযো’গ করে আমাদের ফাঁ’সা’চ্ছে।’

জামালপুর জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার (আরএমও) ডা. মো. শফিকুজ্জামান বলেন, ‘ভি’কটি’ম এ’সি’ড দ্বা’রাই আ’ক্রা’ন্ত হয়েছে।’ জামালপুর সদর থা’নার ওসি মো. নাছিমুল ইসলাম বলেন, মারুফ নামে এক যুবক এ’সি’ড নি’র্যা’ত’নের ঘ’ট’নায় মা’মলা নেওয়া হয়েছে। আট’ক রি’য়া ও তার মাকে

জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আ’দালতে সোপর্দ করা হবে। ঘট’নাটি তদন্ত করে জ’ড়ি’তদের চি’হ্নিত করার চে’ষ্টা চলছে।

Categories
Uncategorized

হঠাৎ কড়া নি’রাপত্তায় সম্ভাব্য প্রেসিডেন্ট বাইডেনের বাসভবন, বিমান উড্ডয়ন নি’ষিদ্ধ

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সম্ভাব্য প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের নিরাপত্তা জোরদারের ঘোষণা দিয়েছে সেদেশের গোয়েন্দা সংস্থা। মার্কিন দৈনিক ওয়াশিংটন

পোস্ট এ তথ্য জানিয়েছে। এছাড়া বাইডেনের বাসভবন ও এর আশেপাশের এলাকায় বিমান উড্ডয়ন নিষিদ্ধ করেছে মার্কিন ফেডারেল বিমান উড্ডয়ন কর্তৃপক্ষ। ওয়াশিংটন পোস্ট জানিয়েছে, আজ শুক্রবার জো বাইডেন ভাষণ দিতে পারেন, এমন তথ্য গোয়েন্দা সংস্থাকে জানিয়েছেন

বাইডেনের এজেন্টরা। তবে যুক্তরাষ্ট্রের সিক্রেট সার্ভিসের মুখপাত্র ক্যাথরিন মিলহোয়ান এ বিষয়ে মন্তব্য করতে চাননি। তিনি বলেছেন, তার সংস্থা শীর্ষ কর্মকর্তাদের নিরাপত্তার ব্যবস্থা সম্পর্কে মন্তব্য করে না। এ বিষয়ে জো বাইডেনের সহযোগীরাও কথা

বলতে রাজি হননি। মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে এখনো জয়-পরাজয়ের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা না এলেও গন্তব্যের খুব কাছেই পৌঁছে গেছেন ডেমোক্রেট দলের প্রার্থী জো বাইডেন। জর্জিয়া অঙ্গরাজ্যে ট্রাম্পকে টপকে যাওয়ার পর এখন বাইডেনের আনুষ্ঠানিক বিজয়ের ঘোষণা কেবলি সময়ের ব্যাপার। ধারণা করা হচ্ছে, ইলেকটোরাল ভোটের হিসাবে ট্রাম্পের চেয়ে ৩৬ ভোট বেশি পেতে যাচ্ছেন বাইডেন।

৫০টি অঙ্গরাজ্য ও ডিস্ট্রিক্ট অব কলাম্বিয়ার মধ্যে নেভাদা, পেনসিলভানিয়া, নর্থ ক্যারোলাইনা, জর্জিয়া ও আলাস্কার ভোটের ফলাফল এখনো মেলেনি। এগুলোতে এখনো ভোট গণনা চলছে। এর মধ্যে পেনসিলভানিয়ায় ২০টি, নর্থ ক্যারোলাইনায় ১৫টি, জর্জিয়ায় ১৬টি, আলাস্কায় তিনটি ও নেভাদায় ছয়টি ইলেকটোরাল ভোট রয়েছে।

জর্জিয়ার পাশাপাশি পেনসিলভানিয়া ও নেভাদা অঙ্গরাজ্যেও শেষ পর্যন্ত বাইডেন জিতবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

সূত্র : পার্সটুডে

Categories
Uncategorized

প্রেমের প্রস্তাবে রা’জি না হওয়ায় ছাত্রের মুখে এ’সি’ড দিল ছাত্রী

জামালপুর পৌরসভার রশিদপুর গ্রামে প্রেমের প্র’স্তাবে রাজি না হওয়ায় এক কলেজছাত্রকে এ’সি’ড মে’রে’ছে এক ছাত্রী। আ’হ’ত ওই

ছাত্রের নাম মাহমুদুল হাসান মারুফ। এসিডে তার মুখম’ণ্ডল ও কাঁ’ধ ঝ’ল’সে গেছে। তাকে শুক্রবার (১৬ মার্চ) ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে এ ঘ’টনা ঘ’টে। পুলিশ ওই ছাত্রী ভাবনা আক্তার রিয়া ও তার মা হাসি বেগম

সুজেদাকে আট’ক করেছে। পুলিশ ও পরিবার সূত্রে জানা যায়, রশিদপুর গ্রামের আ’হ’ত মাহমুদুল হাসান মারুফ জামালপুর সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজে ইলেকট্রনিকস টেকনোলজির প্রথম বর্ষের ছাত্র। একই গ্রামের বাসিন্দা ও ঝাউগড়া বঙ্গবন্ধু কলেজের এইচএসসি প্রথম বর্ষের ছাত্রী ভাবনা আক্তার রিয়া মাহমুদুল হাসান মারুফকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল।

কিন্তু মারুফ তাতে সা’ড়া দেয়নি। এর মধ্যে বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে মারুফ তার বন্ধু সাইফুলকে নিয়ে রিয়ার বাড়ির সামনে দিয়ে যাচ্ছিল। এ সময় রিয়া মারুফকে বাড়ির ভেতরে বৈ’দ্যুতিক লাইনের ত্রু’টি ঠিক করে দিতে বলে। মারুফ দিনের বেলা এসে ঠিক করে দেবে বলে চলে যাচ্ছিল। এ সময় আ’ক’স্মি’ক মারুফের মুখে এ’সি’ড ছু’ড়ে মা’রে রিয়া। এরপর মারুফ চিৎ’কার দিয়ে দৌড়ে রশিদপুর বাজারে

যায়। স্থানীয়রা তাকে জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। এ’সি’ডে মারুফের দুই চোখ ছাড়া মুখমণ্ডলের বেশির ভাগ ঝ’ল’সে গে’ছে। তার ডান কাঁ’ধেও সামান্য দ’গ্ধ হয়েছে। গতকাল তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে পাঠানো হয়। জামালপুর সদর থা’না পুলিশ গতকাল বৃহস্পতিবার গ’ভীর রা’তে রিয়া ও তার

মা হাসি বেগম সুজেদাকে রশিদপুরের বাড়ি থেকে আ’টক করেছে। এ ঘট’নায় মারুফের বাবা দুদু মিয়া বা’দী হয়ে জামালপুর সদর থা’নায় মা’মলা দায়ের করেছেন। এ’সি’ডদ’গ্ধ মারুফ গতকাল বলে, ‘রিয়া আমাকে ঘরে যেতে বললে আমি যাইনি। এ সময় রিয়া দরজা থেকে আমার মুখের দিকে কী যেন ছু’ড়ে মা’ড়ে। আমি সাথে সাথে চিৎ’কা’র দিয়ে দৌ’ড় দিই।

রিয়ার সাথে আমার কোনো প্রেমের সম্পর্ক নেই। রিয়াই আমাকে মাঝেমধ্যে ফোন করে প্রেমের প্র’স্তাব দিত। আমি রাজি হইনি। ঘটনার সময় ওই বাড়ির একটি কক্ষে কিছু লোকজনের কথা শুনেছি। ’ তবে কলেজছাত্রী রিয়া বলে, ‘আমি মারুফকে চিনি না। ওর সাথে আমার কোনো সম্পর্কও নেই। যে সময়ের কথা বলছে আমি আর আমার মা তখন বাড়িতে ঘুমিয়ে ছিলাম। আমি তাকে এ’সি’ড মা’রি’নি। তারা মি’থ্যা অ’ভিযো’গ করে আমাদের ফাঁ’সা’চ্ছে।’

জামালপুর জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার (আরএমও) ডা. মো. শফিকুজ্জামান বলেন, ‘ভি’কটি’ম এ’সি’ড দ্বা’রাই আ’ক্রা’ন্ত হয়েছে।’ জামালপুর সদর থা’নার ওসি মো. নাছিমুল ইসলাম বলেন, মারুফ নামে এক যুবক এ’সি’ড নি’র্যা’ত’নের ঘ’ট’নায় মা’মলা নেওয়া হয়েছে। আট’ক রি’য়া ও তার মাকে

জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আ’দালতে সোপর্দ করা হবে। ঘট’নাটি তদন্ত করে জ’ড়ি’তদের চি’হ্নিত করার চে’ষ্টা চলছে।